ঢাকা, রোববার 19 August 2018, ৪ ভাদ্র ১৪২৫, ৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজধানীতে মাইক্রোবাস চাপায় শ্রমিকের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর তেজগাঁয়ে মাইক্রোবাসের চাপায় শফিকুল ইসলাম (৪০) নামে এক শ্রমিক মারা গেছেন। এ ঘটনায় ইসমাইল হোসেন (৩৮) নামের অপর শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছেন। শুক্রবার রাত ৩টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। মৃত শফিকুল শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ির তারাকান্দা গ্রামের আ. রাজ্জাকের ছেলে।
তেজগাঁও থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) মোহাম্মদ আলী জানান, তেজগাঁও এলাকায় সড়ক সংস্কারের কাজ করছিল শ্রমিক শফিকুল ইসলাম (৪০) ও ইসমাইল হোসেন (৪০)। এ সময় বেপরোয়া গতির একটি মাইক্রোবাস সড়ক ডিভাইডারের উপর উঠে যায়। এতে সেখানে দুই শ্রমিক গুরুতর আহত হন। আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ভোর ৪টার দিকে শফিকুলকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় আহত অপর ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার পর চালক গাড়ি রেখে পালিয়ে গেছে। মাইক্রোবাসটি জব্দ করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।
শাহজালালে ৩০ লাখ টাকার স্বর্ণবারসহ যাত্রী গ্রেফতার: হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এক যাত্রীর রেক্টাম থেকে ৬টি সোনার বার উদ্ধার করেছে শুল্ক গোয়েন্দা। গ্রেফতার করা হয়েছে সৌরভ নামের ওই যাত্রীকে। শুক্রবার রাতে থাইল্যান্ড থেকে চট্টগ্রাম হয়ে ওই যাত্রী এয়ারওয়েজ ফ্লাইট যোগে ঢাকায় আসেন। জব্দকৃত সোনার মোট ওজন ৬০০ গ্রাম। যার বাজার মূল্য ৩০ লাখ টাকা। গতকাল শনিবার শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মো. সহিদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
শুল্ক গোয়েন্দা জানায়, যাত্রী সৌরভ থাইল্যান্ড থেকে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ ফ্লাইট নং আরএক্স-৭৮৭ যোগে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকা আসছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যাত্রীকে ডমেস্টিক টারমিনাল অতিক্রম করে বাইরে বের হবার সময় শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের একটি দল তাকে চ্যালেঞ্জ করে। সুনিশ্চিত তথ্য থাকার পরেও জিজ্ঞাসাবাদে যাত্রী স্বর্ণ বহনের বিষয়টি অস্বীকার করেন। এরপর অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে যাত্রী তার রেক্টামে স্বর্ণ বহনের বিষয়টি স্বীকার করেন। এরপর বিশেষ কায়দায় তাকে ব্যায়াম করিয়ে, রুটি, কলা, জুস ও পানি খাইয়ে শুল্ক গোয়ন্দা দল তার রেক্টাম থেকে ছয়টি স্বর্ণবার বের করায়। যাত্রীর নাম সৌরভ মিনা। জব্দ স্বর্ণ ঢাকা কাস্টমস হাউজের মূল্যবান গুদামে জমা দেওয়া হয়েছে এবং যাত্রীকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করে মামলা করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ