ঢাকা, সোমবার 20 August 2018, ৫ ভাদ্র ১৪২৫, ৮ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কলাপাড়ায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদদাতা : পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলা মহিপুর ইউনিয়নের সেরাজপুরে মাকে ঘরে বেঁধে রেখে মেয়েকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার রাতে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিবস্ত্র অবস্থায় ইভার মরদেহ উদ্ধার করে কুয়াকাটা ২০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।
স্থানীয় মানুষ ডাকাতদের দুর্বৃত্তপনার সন্দেহ করলেও পুলিশ বলছে অন্য কথা। সেরাজপুর গ্রামের কাঠ মিস্ত্রি ইসমাইল হোসেনের মেয়ে ইভা (১১) স্থানীয় মহিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী।
নিহত ইভার চাচা ইউসুফ ঘরামী এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, মঙ্গলবার রাতে দিকে একদল দুর্বৃত্ত তার ভাই ইসমাইল ঘরামীর ঘর থেকে বেরিয়ে যায়।
এসময় মা সালামা বেগম দৌড়ে পাশের বাড়ি গিয়ে ডাকাত ডাকাত বলে চিৎকার দিয়ে সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন।
তাঁর ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে ঘরে ছোট্ট দুই শিশুকে দেখতে পেলেও ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ইভাকে খুঁজে পাচ্ছিলনা তারা।
অনেক খোঁজাখুঁজির পর ঘরের দোতলায় বিবস্ত্র অবস্থায় ইভাকে পাওয়া যায়।
এ সময় তার শরীরের স্পর্শকাতর অঙ্গ দিয়ে প্রচুর রক্তক্ষরণ হতে দেখে দ্রুত উদ্ধারকারী লোকজন কুয়াকাটা ২০ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে হাসপাতালের চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ