ঢাকা, মঙ্গলবার 21 August 2018, ৬ ভাদ্র ১৪২৫, ৯ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

এমপির উপস্থিতিতেই অধ্যক্ষকে মারপিট আ’লীগ নেতার

গোদাগাড়ী (রাজশাহী) সংবাদদাতা : রাজশাহীর গোদাগাড়ী ডিগ্রি কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভা চলাকালীন এমপির উপস্থিতিতে আওয়ামী লীগ নেতা ও তার সহযোগীদের হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন কলেজ অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান। পরে স্থানীয়লোকজন কলেজের অফিস থেকে আহত অধ্যক্ষ আব্দুর রহমানকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।
ঘটনাটি ঘটে রোববার সন্ধ্যায় গোদাগাড়ী কলেজের অফিস কক্ষে। এ বিষয়ে অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান জানান, এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর উপস্থিতিতেই আওয়ামী লীগ নেতা অয়েজউদ্দিন বিশ্বাস ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী তার উপর হামলা চালায়। এতে তিনি মারাত্মকভাবে জখম হন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গোদাগাড়ী কলেজের গর্ভনিংবডির সভাপতি ও স্থানীয় এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর সভাপতিত্বে রোববার বিকেলে কলেজে পরিচালনা পর্ষদের সভা চলার এক পর্যায়ে কমিটির অন্যতম সদস্য ও গোদাগাড়ী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অয়েজউদ্দিন বিশ্বাস কলেজ সরকারি হওয়ায় ৪০ লাখ টাকা দেয়ার জন্য কলেজ অধ্যক্ষকে চাপ দেন। এই টাকা ওপরের খরচ হিসাবে এমপির হাতে দিতে হবে বলে আওয়ামী লীগ নেতা অয়েজুদ্দিন বিশ্বাস অধ্যক্ষকে জানান। এছাড়া অনার্স ক্লাসের শিক্ষক নিয়োগের প্রায় এক কোটি টাকার হিসাব অধ্যক্ষের কাছে দাবি করেন আওয়ামী লীগ নেতা। এক পর্যায়ে অধ্যক্ষ ও আওয়ামী লীগ নেতার মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে সভার মধ্যে। এদিকে কিছুক্ষণের মধ্যে খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ নেতা অয়েজুদ্দিন বিশ্বাসের একদল অনুসারী কলেজের সভাকক্ষে প্রবেশ করে অধ্যক্ষ আব্দুর রহমানকে বেধড়ক মারপিট শুরু করেন। এক পর্যায়ে আওয়ামী লীগ নেতার অনুসারীরা মাটিতে ফেলে দিয়ে অধ্যক্ষকে চেয়ার দিয়ে পেটাতে থাকেন। এসময় অধ্যক্ষ জ্ঞান হারিয়ে ফেললে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে এলাকার মানুষ উদ্ধার করে অধ্যক্ষ আব্দুর রহমানকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে গোদাগাড়ী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ঘটনার পর পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কোনো পক্ষই থানায় অভিযোগ না দেয়ায় কাউকে আটক বা গ্রেফতার করা যায়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ