ঢাকা, মঙ্গলবার 21 August 2018, ৬ ভাদ্র ১৪২৫, ৯ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রামগঞ্জে ভিজিএফ চাল বিতরণে অনিয়ম ২০ কেজির স্থলে ১৩ কেজি!

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা: জেলার রামগঞ্জে ঈদ উল আযহা উপলক্ষে সরকারের দেয়া বিশেষ বরাদ্দের চাল বিতরণে ব্যাপক দূর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে।
সম্প্রতি উপজেলার ৮ নং করপাড়া ইউনিয়নে দুঃস্থদের মাঝে বিনা মূল্যে ঈদুল আযহার বিশেষ বরাদ্দের চাল বিতরণ শুরু হয়। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী এ বছর জনপ্রতি ২০ কেজি করে চাল দেওয়ার নির্দেশ রয়েছে। উপজেলার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান অফিস সূত্রে জানা গেছে, ঈদের মৌসুমে ৮ নং করপাড়া ইউনিয়নের ৮৪৫ পরিবারের মাঝে ২০ কেজি হারে চাল বিতরণ করার কথা রয়েছে। বিতরণকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় ভিন্ন চিত্র। কিন্তু স্থানীয় সুবিধা বঞ্চিত লোকজনের অভিযোগ চেয়ারম্যানের নির্দেশে ২০ কেজির স্থলে প্রত্যেক সুবিধাভোগী সদস্যকে চেয়ারম্যান মজিবুল হক মজিব ১০ থেকে ১২ কেজি চাল বিতরণ করা হচ্ছে। এসময় ইউনিয়ন পরিষদের ভিতর থেকে চাল নিয়ে আসা ভূক্তভোগী সদস্যরা এমন নানা অভিযোগ করেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে ট্যাগ অফিসার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপারভাইজার শরীফ উল্যা চাল বিতরণ স্থলে না গিয়ে তার স্থলে ওই অফিসের পিয়ন মোঃ অজি উল্যা চেয়ারম্যানের সাথে বসে খোশ গল্প করছেন। শিক্ষা অফিসের পিয়ন অজি উল্যা জানান, ট্যাগ অফিসার ঈদের ছুটিতে ঢাকায় চলে যাওয়ায় আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তবে আমার সামনে দুই বালতি করে  চাল দিয়েছে। তবে সেখানে কত কেজি চাল তা আমি জানি না। ৮ নং করপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মজিবুল হক মজিব জানান, আমি ৮৪৫টি কার্ড পেয়েছি। কিন্তু সুবিধাভোগী ১১’শত এর বেশী হওয়ায় সমবন্টনের উদ্দেশ্যে ২০ কেজির স্থলে ১২/১৪ কেজি করে সবাইকে ভাগ করে দিয়েছি। যাতে অসহায় সবাই পায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ