ঢাকা, শনিবার 25 August 2018, ১০ ভাদ্র ১৪২৫, ১৩ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

উত্তর কোরিয়ার কাছে হেরেই গেল বাংলাদেশ 

স্পোর্টস রিপোর্টার: এশিয়ান গেমস ফুটবলের নক আউট পর্ব থেকেই বিদায় নিলো বাংলাদেশ। উত্তর কোরিয়ার সাথে ঘাম ঝরানো ম্যাচে তারা ৩-১ গোলে হেরে যায়। ফলে বাংলাদেশকে হারিয়ে শেষ আটের লড়াইয়ে অর্থাৎ কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেলো ১৯৬৬ এবং ২০১০ সালে বিশ্বকাপ খেলা উত্তর কোরিয়া। ফিফা র‌্যাংকিং অনুযায়ি দলের পার্থক্য অনেক। ৮৬ ধাপ এগিয়ে থাকা দলটির বিপক্ষে অসাধারন খেলেছে লাল-সবুজ জার্সীধারীরা। বলা যায় অভিজ্ঞতার আলোকেই জয় তুলে নিয়েছে কোরিয়া। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় ইন্দোনেশিয়ার ওয়াইবাওয়া মুক্তি স্টেডিয়ামে শেষ আটে যাওয়ার লড়াইয়ে লড়াকু মনোভাবেই খেলতে নেমেছিল জেমি ডে’র শিষ্যরা। আগের ম্যাচের জয়ের আত্মবিশ্বাস নিয়েই নেমেছিল তারা। আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে খেলা শুরু হলেও বাংলাদেশের রক্ষণভাগের দখল নিতে খুব বেশী সময় লাগেনি কোরিয়ানদের। তবে ম্যাচের ১২ মিনিটেই গোলের দেখা পায় উত্তর কোরিয়া। ডি-বক্সে সুশান্ত ত্রিপুরার হাতে বল লাগায় পেনাল্টি পায় তারা। পেনাল্টি থেকে গোল করে বসেন ইয়ং কিম (১-০)। এরপর ম্যাচে ফিরতে লড়াই চালায় লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। কিন্তু উল্লেখ করার মত তেমন সহজ কোন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি জেমীর শিষ্যরা। বরং ৩৮ মিনিটে আবারো ব্যবধান বাড়ায় কোরিয়া। ডি-বক্সে রক্ষণভাগ অনেকটা ফাঁকি দিয়েই গোল করে বসেন ইয়ং থাই হান। আর তাতেই ২-০ গোলের ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ।

বিরতি থেকে ফিরে গোলের দেখা পেতে আক্রমণাত্মক কৌশলে খেললেও কোরিয়ার রক্ষণভাগের কারণে জোরালো কোনো শট নিতে পারেনি লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। ম্যাচের ৬৯ মিনিটে ডি-বক্সে খেলোয়াড়দের ভুলে বল পেয়ে ব্যবধান আরও বাড়ান কোরিয়ার কুক চল কেং (৩-০)। যোগ করা সময়ে ডি-বক্সে সতীর্থের বাড়ানো বল পেয়ে বাংলাদেশ দলের আক্রমণভাগের ফুটবলার সাদ উদ্দিন দলকে একটি গোল উপহার দেন (১-৩)। শেষদিকে দারুণ এক সুযোগ হারান মোহাম্মদ রবিউল। ডি-বক্সে সতীর্থের বাড়ানো বল পেয়ে লক্ষ্যহীন হেডে সুযোগ নষ্ট করেন তিনি। আর তাতেই ৩-১ ব্যবধানে হেরে মাঠ ছাড়ে জেমি ডে’র শিষ্যরা। উল্লেখ্য গেমসে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ৩-০ গোলে উজবেকিস্তানের বিপক্ষে হেরে আসর শুরু করেছিল বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়ায় লাল-সবুজরা। এগিয়ে থেকেও থাইল্যান্ডের বিপক্ষে জেতা হয়নি জামালদের। ১-১ গোলে ড্র হয় ম্যাচটি। এরপর কাতারের বিপক্ষে ম্যাচের যোগ করা সময়ে জামাল ভূঁইয়ার দুর্দান্ত গোলে প্রথমবারের মতো এশিয়ান গেমসের নক আউট পর্বে পা রাখলো লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। উল্লেখ্য উত্তর কোরিয়া এবং বাংলাদেশ জাতীয় দল এর আগে একবারই পরস্পরের মুখোমুখি হয়েছিল। ১৯৮০ সালে এএফসি এশিয়ান কাপে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৩-২ গোলে জয় পায় কোরিয়া। দীর্ঘ ৩৮ বছর পর পুরনো প্রতিপক্ষের বিপক্ষে মাঠে নেমে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার স্বপ্ন ভাঙ্গে বাংলাদেশের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ