ঢাকা, শনিবার 25 August 2018, ১০ ভাদ্র ১৪২৫, ১৩ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নাটোরে বিদেশী মদসহ শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

নাটোর সংবাদদাতা : নাটোরে র‌্যাবের অভিযানে বিদেশী মদসহ জেলার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ কামরুজ্জামান ওরফে জামাল (৩৫) কে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৫। ঈদের আগের দিন বিকালে জেলার বাগাতিপাড়া উপজেলার জামনগর কাহারপাড়া গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় তার কাছ থেকে ৩৩ বোতল বিদেশী মদ ও মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। জামাল বাগাতিপাড়া উপজেলার একই এলাকার আঃ রহিমের ছেলে। সে এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে মাদক ব্যবসা করে আসছিল বলে জানায় র‌্যাব। পরে তার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে জেল হাজতে পাঠানো হয়। 

বিচার দাবি

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় শহীদদের স্মরণে নাটোরে শোক র‌্যালি শেষে সমাবেশ থেকে দায়ী ব্যক্তিদের বিচারের দাবি করেছে জেলা আওয়ামীলীগ। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার ঈদের আগের দিন বেলা ১১টার দিকে শহরের কান্দিভিটাস্থ আওয়ামীলীগের অস্থায়ী কার্যালয় থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে নাটোর প্রেস ক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়। সেখানে এক সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ গোলাম মোর্ত্তজা আলী বাবলুসহ দলের নেতা-কর্মীরা। তারা একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় দায়ী ব্যক্তিদের বিচারের দাবি করেছেন। 

বাসের ধাক্কা  

নিহত ১ ॥ আহত ৩৫

নাটোরের বড়াইগ্রামে দ্রুতগামী যাত্রী বোঝাই বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে মঞ্জুয়ারা বেগম (৫০) নামে এক গার্মেন্টস কর্মী নিহত ও নারী-শিশুসহ আরও কমপক্ষে ৩৫ জন আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে বনপাড়া-হাটিকুমরুল-ঢাকা মহাসড়কের রয়না ফিলিং স্টেশনের পশ্চিম পার্শ্বে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মঞ্জুয়ারা বেগম রাজশাহী জেলার মোহনপুর উপজেলার পুল্লাকুড়ি গ্রামের আলীম উদ্দিনের স্ত্রী আহতদের মধ্যে এক শিশুসহ পাঁচজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিএম শামস্ নূর জানান, মঙ্গলবার ঢাকা থেকে রাজশাহীগামী সোহাগ পরিবহন (ঢাকা মেট্রো-ব ১৪-৭৩৫৩) নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পার্শ্বের গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। আহতদের উদ্ধার করে দ্রুত বড়াইগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে বাস যাত্রী মঞ্জুয়ারা বেগম মারা যান। আহতদেরকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও নাটোর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। নিহত ও আহতরা সবাই ঢাকায় বিভিন্ন গার্মেন্টসে কর্মরত এবং রাজশাহী জেলার বাগমারা, পবা ও মোহনপুর উপজেলার বাসিন্দা। তারা বাসটি রিজার্ভ করে স্বজনদের সাথে ঈদ করতে বাড়ী আসছিলেন বলে জানা গেছে।

সব ভস্মিভূত

নাটোরে আগুনে পুড়ে এক পরিবারের সব ভস্মিভূত হয়ে গেছে। পুলিশ ও নাটোর ফায়ার সার্ভিসের প্রাথমিক হিসাব মতে পরিবারটির ছয়টি আধাপাকা ঘর ও ঘরের সকল মালামাল, নগদ টাকা, গহনা ও ফসল পুড়ে ১৫লাখ টাকার অধিক ক্ষতি হয়েছে। তবে স্থানীয়রা জানিয়েছে ক্ষতির পরিমাণ আরো অনেক বেশি। নাটোর ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, নাটোর চিনিকল সংলগ্ন সিংহারদহ গ্রামের হাফিজার রহমানের বাড়ির নতুন ফ্রিজের সংযোগে শর্টসার্কিট থেকে আগুন ধরে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার আগে পরিবারটির ছয়টি আধাপাকা ঘর ও ঘরের সকল মালামাল, নগদ টাকা, গহনা ও ফসল পুড়ে ১৫ লাখ টাকার অধিক ক্ষতি হয়েছে। এ সময় বাড়ির দুই ছেলেসহ অন্যরা বেড়াতে যাওয়ায় শুধুমাত্র হাফিজার রহমানের স্ত্রী বাড়িতে ছিলেন, ফলে জানাজানি হয়ে ও ফায়ার সার্ভিসে খবর দিতে দেরি হওয়ায় সব কিছু পুড়ে ভস্মিভূত হয়ে যায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ