ঢাকা, শুক্রবার 21 September 2018, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

জরুরিভাবে তহবিল পূরণ না হলে বিপদে পড়বে রোহিঙ্গারা: জাতিসংঘ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: রোহিঙ্গাদের জন্য জরুরিভাবে তহবিলের ব্যবস্থা করা না হলে তারা পুনরায় বিপদে পড়বে বলে জানিয়েছেন জাতিসংঘ কর্মকর্তারা।

তবে তারা বলেন, মিয়ানমারের সহিংসতা থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া কয়েক লাখ রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুর সুরক্ষায় গত ১২ মাসে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, ‘রোহিঙ্গা ২০১৮’ তহবিলের জন্য ৯৫ কোটি মার্কিন ডলারের আবেদন জানানো হলেও এখন পর্যন্ত মাত্র ৩০ শতাংশ পূরণ করা হয়েছে।

শুক্রবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার উপমহাপরিচালক ডা. পিটার সালামা জেনেভায় সাংবাদিকদের বলেন, এখন পর্যন্ত ‘হাজার হাজার’ জীবন রক্ষা করা হয়েছে। এ জন্য বাংলাদেশ সরকার, ডব্লিউএইচও ও সহযোগীদের যৌথ প্রচেষ্টার ধন্যবাদ প্রাপ্য।

কক্সবাজার উপকূলে ‘ব্যাপক মহামারী হওয়ার মতো সব ধরনের পরিবেশ’ থাকার পরও মারাত্মক রোগের প্রাদুর্ভাব ঠেকিয়ে দেয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ৪০ লাখ ডোজের টিকাসহ প্রতিষেধকমূলক প্রচারাভিযানের কল্যাণে হাম, ডিপথেরিয়া, পোলিও, কলেরা এবং রুবেলা রোগের কোনো প্রাদুর্ভাব হয়নি।

তবে পরিবেশের অবস্থা, দুর্বল পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা ও ব্যাপক ঘনবসতির কারণে এখনো বড় ধরনের ঝুঁকি রয়ে গেছে বলে জানান ডা. পিটার সালামা।

ঝুঁকি মোকাবেলায় তিনি সাহায্য বাড়ানোর যে আহ্বান জানিয়েছেন তা জেনেভায় জাতিসংঘের অভিবাসনবিষয়ক সংস্থা আইওএম’র মুখপাত্র জুয়েল মিলম্যানের কথাতেও প্রতিধ্বনিত হয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ সরকার ও স্থানীয় জনগণের উদারতা, দাতাগোষ্ঠী এবং সংশ্লিষ্ট সবার কঠোর পরিশ্রমের কল্যাণে অসংখ্য জীবন রক্ষা পেয়েছে। কিন্তু এখন আমরা খুব বাস্তব হুমকির মুখে আছি। যদি আরো তহবিল জরুরিভাবে পূরণ করা না হয় তাহলে জীবনগুলো আবারো ঝুঁকিতে পড়বে।-ইউএনবি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ