ঢাকা, রোববার 26 August 2018, ১১ ভাদ্র ১৪২৫, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ওয়ালটন ফ্রিজের বাম্পার সেল

এবারের ঈদে ফ্রিজের বাজার বেশ চাঙ্গা। বিশেষ করে ব্যাপক বিক্রি হচ্ছে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের ফ্রিজ। কর্তৃপক্ষ বলছে, এবার ওয়ালটন ফ্রিজের বাম্পার সেল (বিক্রি) হয়েছে। ওয়ালটন এবার বাজারে এনেছে ১৪৫ মডেলের ফ্রস্ট, নন ফ্রস্ট ও ডিপ ফ্রিজ। এরমধ্যে নতুন এসেছে ৫৩ মডেলের ফ্রিজ। 

ঈদুল আযহায় প্রাথমিকভাবে ৪ লাখ ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট ছিলো ওয়ালটনের। কিন্তু শুরুতেই টার্গেট পূরণ হওয়ায় পরে ৫ লাখ ফ্রিজ বিক্রির টার্গেট পূণঃ নির্ধারণ করা হয়। ইতিমধ্যে সেই টার্গেটও পূরণ হয়ে গেছে। এখন কর্তৃপক্ষ আশা করছে ঈদে ওয়ালটনের ফ্রিজ বিক্রি ৬ লাখে পৌঁছতে পারে। উল্লেখ্য, দেশের ফ্রিজের বাজারের ৭০ শতাংশেরও বেশি রয়েছে ওয়ালটনের দখলে। বিশেষ করে ঈদ মেগা ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় নতুন গাড়িসহ বিভিন্ন পণ্য পাওয়ার সুযোগ থাকায় দেশের ক্রেতারা সব ঝুঁকেছেন ওয়ালটন শোরুমে।   

ঈদে মানুষের হাতে কাঙ্খিত অর্থের যোগান, মানসিক শান্তি, বিদ্যুত পরিস্থিতির উন্নতি, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, ভাদ্র মাসের অসহনীয় গরম ইত্যাদি কারনে ফ্রিজের বিক্রি বেড়েছে। গত বছর বন্যা, অতিবৃষ্টি এবং ফসলহানির কারণে ফ্রিজের বিক্রি ব্যাহত হলেও এবার যে সেসবের বালাই ছিলো না। ফলে এবার ঈদুল আযহা বা কোরবানি ঈদের আগে সারা দেশে ব্যাপকহারে বিক্রি হচ্ছে ফ্রিজ। বিশেষ করে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটনের ফ্রিজ বিক্রি হচ্ছে দেদারসে। পছন্দের ফ্রিজ কিনতে ঈদের আগমুহুর্তে ওয়ালটন শোরুমে ভিড় করছেন ক্রেতারা। 

চট্টগ্রাম, রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, বগুড়া, সিলেট, নরসিংদীসহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলে নিয়োজিত ওয়ালটনের বিক্রয় প্রতিনিধি ও পরিবেশকরা ব্যাপকহাওে ফ্রিজ বিক্রির খবর জানিয়েছেন। তারা জানান, কোরবানি ঈদে ১৪৫ মডেলের ফ্রস্ট, নন-ফ্রস্ট, স্মার্ট এবং ডিপ ফ্রিজ বাজারে ছেড়েছে দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। এর মধ্যে নতুন এসেছে ৫৩ মডেলের ফ্রিজ। 

ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ও বিপণন বিভাগের প্রধান এমদাদুল হক সরকার বলেন, এবার কোরবানি ঈদের আগে ফ্রিজ বিক্রি হচ্ছে আশাতীত। ঈদ মেগা ক্যাম্পেইনে কারণে বিক্রিও বেশ ভালো। ইতোমধ্যে ঈদে ৫ লাখ ফ্রিজ বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে। শেষ মুহুর্তে যে পরিমান ক্রেতা সমাগম হচ্ছে তাতে ফ্রিজের বিক্রি ৬ লাখে পৌঁছবে বলে তিনি আশা করছেন। প্রেসবিজ্ঞপ্তি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ