ঢাকা, রোববার 26 August 2018, ১১ ভাদ্র ১৪২৫, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বর্ষীয়ান আলেম মাওলানা  আব্দুল হাই এর ইন্তিকাল

 

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের বাড্ডা পূর্ব থানার প্রবীণ রুকন, বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন, বিশিষ্ট সমাজসেবী ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব মাওলানা আব্দুল হাই শনিবার রাত ১ টায় রাজধানীর অদর্শনগরস্থ নিজ বাসভবনে ইন্তিকাল করেছেন-ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। তার বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। তিনি দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত অসুস্থতাসহ নানাবিধ শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে ও ২ মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন এবং গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি অনেক মাদরাসা ও মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা। তিনি আমৃত্যু রাজধানীর সেকেন্দারাবাদ মসজিদ ও মাদরাসা কমপ্লেক্সের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার চাটখিলে।

মরহুমের নামাযে জানাযা গতকাল শনিবার সকাল ১০ টায় তার প্রতিষ্ঠিত সেকেন্দারবাদ মাদরাসা মসজিদ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। নামাযে জানাযায় ইমামতি করেন গুলশান-১ ডিসিসি মসজিদের খতিব মাওলানা রসুলুল আমীন। উপস্থিত ছিলেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য মাওলানা আব্দুল হালীম, কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন, কেন্দ্রীয় মজলিশে শূরা সদস্য নাজিম উদ্দীন মোল্লা, বাড্ডা পূর্ব থানা আমীর মাওলানা কুতুব উদ্দীন, গুলশান মার্কেটের সভাপতি ও সেক্রেটারিসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিসহ বিপুল সংখ্যক সাধারণ জনতা। জানাযা পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন। পরে স্থানীয় গোরস্তানে মরহুমকে দাফন করা হয়।

জানাযা পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেন, মৃত্যু সকল জীবেরই অনিবার্য পরিণতি। কালামে হাকীমের ঘোষণায় বলা হয়েছে, ‘প্রত্যেক আত্মাই মরণশীল’। তাই আমাদেরকেও একদিন মরহুম মাওলানা আব্দুল হাইয়ের পদাঙ্ক অনুসরণ করতে হবে। তিনি মৃত্যুর অনিবার্য পরিণতির কথা স্মরণ করে সকলকে সৎকর্মশীল ও মানুষের কল্যাণে কাজ করার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, মাওলানা আব্দুল হাই মানুষের মুক্তির যে স্বপ্ন দেখতেন সে স্বপ্নের পূর্ণ বাস্তবায়ন তিনি দেখে যেতে পারেননি। তাই তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের দায়িত্ব আমাদের ওপর বর্তেছে। মূলত মরহুমের অসমাপ্ত কাজকে সমাপ্ত করতে পারলেই তার প্রতি যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করা হবে। মহানগরী আমীর মরহুম মাওলানার স্বপ্ন বাস্তবায়নে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান এবং তার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। 

শোকবাণী: মাওলানা আব্দুল হাইয়ের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন।

এক শোকবাণীতে মহানগরী আমীর বলেন, মাওলানা আব্দুল হাইয়ের মৃত্যুতে আমরা ইসলামী আন্দোলনের একজন প্রবীণ সৈনিক ও নিবেদিতপ্রাণ ব্যক্তিত্বকে হারালাম। মরহুম বিশিষ্ট সমাজ সেবক, বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন শিক্ষানুরাগী হিসেবে খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তিনি অনেক মাদরাসা ও মসজিদ প্রতিষ্ঠা করে সারাজীবন তিনি নিজেকে দ্বীনী খেদমতে নিয়োজিত রেখেছিলেন। সর্বোপরি তিনি ইসলামী আন্দোলনের একজন শপথের কর্মী হিসেবে ন্যায়-ইনসাফের সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে নিরলসভাবে কাজ করে গেছেন। তার মৃত্যুতে ইসলামী আন্দোলনে যে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে তা সহজেই পূরণীয় নয়। 

মহানগরী আমীর মরহুমের নেক আমলগুলোকে কবুল করে নিয়ে তাকে জান্নাত দানের জন্য মহান আল্লাহ তায়ালার দরবারে দোয়া করেন। তিনি তার শোকাহত পরিবার-পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান এবং তাদের ধৈর্যধারণের তাওফিক কামনা করেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ