ঢাকা, রোববার 26 August 2018, ১১ ভাদ্র ১৪২৫, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চাল ও গম আত্মসাৎ মামলায় মংলার সাবেক খাদ্য কর্মকর্তা নিজামের কারাদণ্ড

খুলনা অফিস : ২১ লাখ ৬৮ হাজার ৪৩৬ টাকা মূল্যের ৬০৭১১ মেট্রিক টন চাল ও ৬৪৮১ মেট্রিক টন গম আত্মসাৎ মামলায় মংলা খাদ্য গুদামের সাবেক কর্মকর্তা শেখ নিজাম উদ্দিন (৫৫) কে ৫ বছরের সশ্রম কারাদ- দিয়েছে আদালত। এছাড়া  ২১ লাখ ৬৮ হাজার ৪৩৬ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদ- দেয়া হয়। রোববার খুলনা বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক এস এম আব্দুস ছালাম এ রায় ঘোষণা করেছেন। রায় ঘোষণাকালে দন্ডপ্রাপ্ত আসামি শেখ নিজাম উদ্দিন আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। তিনি বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট থানার বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মৃত শেখ আশরাফ উদ্দিনের ছেলে। 

আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো. ইয়াসিন আলী নথীর বরাত দিয়ে জানান, বাগেরহাট জেলার মংলা থানাধীন কুমারখালি সরকারি খাদ্য গুদামের ইনচার্জ ছিল শেখ নিজাম উদ্দিন। তার বদলীর আদেশে উপ-খাদ্য পরিদর্শক মো. আমিন উদ্দিন মোড়লকে গুদামের মালামাল ওজন করে বুঝে দেয়ার আদেশ হয়। ২০১৩ সালের ১ অক্টোবর থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত সময় মালামাল ওজনে বুঝে নেয়াকালে ৬০৭১১ মেট্রিক টন চাল ও ৬৪৮১ মেট্রিক টন গম কম পাওয়া যায়। যার আনুমানিক মূল্য ২১ লাখ ৬৮ হাজার ৪৩৬ টাকা। এ ঘটনায় ১৩ অক্টোবর মংলা উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রবিউল ইসলাম খান চৌধুরী বাদী হয়ে শেখ নিজাম উদ্দিনের  বিরুদ্ধে মংলা থানায় মামলা দায়ের করেন (নং-০৪)। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশন সম্মিলিত জেলা কার্যালয় খুলনার উপ-সহকারী পরিচালক মো. মোশাররফ হোসেন ২০১৪ সালের ১৮ ডিসেম্বর আদালতে শেখ নিজাম উদ্দিনের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন। রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি এডভোকেট লুৎফুল কবির নওরোজ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ