ঢাকা, রোববার 26 August 2018, ১১ ভাদ্র ১৪২৫, ১৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনা-৪ আসনে উপনির্বাচন ২০ সেপ্টেম্বর

খুলনা অফিস : খুলনা-৪ আসনের শূন্য পদে উপ-নির্বাচন আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচন উপলক্ষে মঙ্গলবার তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। একই সাথে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলীকে রিটার্নিং অফিসার হিসেবে এবং ৩ জন সহকারি রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এ আসনের শূন্য পদে উপ-নির্বাচনের সম্ভাব্য ভোটার, ভোট কেন্দ্র ও বুথ কক্ষের সংখ্যা প্রস্তুত করা হয়েছে। 

আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, নির্বাচন কমিশন দশম জাতীয় সংসদের (১০২) খুলনা-৪ আসনের শূন্য পদে উপ-নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করেছে। 

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২৬ আগস্ট রবিবার রিটার্নিং অফিসার ও সহকারী রিটানিং অফিসারের নিকট মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন, ২৮ আগস্ট মঙ্গলবার রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক মনোনয়নপত্র বাছাই, ৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং আগামী ২০ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ভোট গ্রহণ। 

এদিকে খুলনা-৪ আসনের শূন্য পদে নির্বাচনে খুলনা-৪ আসনের ১৭টি ইউনিয়নে সম্ভাব্য ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ১৪২টি ও ভোটকক্ষ রয়েছে ৭০১টি। আর সম্ভাব্য ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৩৮ হাজার ১৯৬ জন। এর মধ্যে ১ লাখ ৭০ হাজার ৫৮ জন পুরুষ এবং ১ লাখ ৬৮ হাজার ১৩৮ জন নারী ভোটার রয়েছে। এ আসনের রূপসা উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ৫৭টি ভোট কেন্দ্রে ২৮৯টি বুথ রয়েছে। এখানে ভোটার রয়েছে ১ লাখ ৩৬ হাজার ৯৭০ জন। এর মধ্যে ৬৯ হাজার ৩৩ জন পুরুষ এবং ৬৭ হাজার ৯৩৭ জন নারী ভোটার। 

তেরখাদা উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ৩৬টি ভোট কেন্দ্রে ১৭৯টি বুথ রয়েছে। এখানে ভোটার রয়েছে ৮৭ হাজার ৯৭ জন। এর মধ্যে ৪৩ হাজার ৫৫৮ জন পুরুষ এবং ৪৩ হাজার ৫৩৯ জন নারী ভোটার। দিঘলিয়া উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের ৪৯টি ভোট কেন্দ্রে ২৩৩টি বুথ রয়েছে। এখানে ভোটার রয়েছে ১ লাখ ১৪ হাজার ১২৯ জন। এর মধ্যে ৫৭ হাজার ৪৬৭ জন পুরুষ এবং ৫৬ হাজার ৬৬২ জন নারী ভোটার।  

নির্বাচনের জন্য রিটার্নিং অফিসার হিসেবে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলীকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এছাড়া ৩ জন সহকারী রিটার্নিং অফিসার নিয়োগ এবং তাদের অধিক্ষেত্র ও কর্মস্থল বন্টন করে দেয়া হয়েছে। 

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুলাই দিবাগত রাতে খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এস এম মোস্তফা রশিদী সুজা সিঙ্গাপুরের অর্চিডে অবস্থিত মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার মৃত্যুতে দশম জাতীয় সংসদের (১০২) খুলনা-৪ আসনটি শূন্য হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ