ঢাকা, সোমবার 19 November 2018, ৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

পিরোজপুরে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ ‘ডাকাত সর্দার’ নিহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

পিরোজপুরে কথিত‘বন্ধুকযুদ্ধে’ সন্দেহভাজন ডাকাত দলের সর্দার জাকির হোসেন (৫৪) নিহতের খবর জানিয়েছে পুলিশ।

শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে পিরোজপুর জেলার ইন্দুরকানী উপজেলার পত্তাশী গ্রামের বটতলা তিনরাস্তা মোড়ে এ ‘বন্ধুকযুদ্ধ’ হয় বলে জানায় পুলিশ।

নিহত জাকির আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার এবং পিরোজপুর জেলার কাউখালী উপজেলার জোলাগাতী গ্রামের বাসিন্দা ফজলুর ছেলে।

পুলিশ বলছে, ডাকাত সর্দার জাকির হোসেন এর বিরুদ্ধে বিভিন্ন জেলা ও পিরোজপুর মোট ১১টি ডাকাতি মামলা রয়েছে।

ইন্দুরকানী থানার ওসি নাসির উদ্দিন ভাষ্য, আটক ডাকাত সর্দার জাকিরকে সাথে নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার দিবাগত রাত ২টায় পিরোজপুরের ডিবি পুলিশ ও ইন্দুরকানী থানা পুলিশ ইন্দুরকানী উপজেলার পত্তাশী গ্রামের বটতলা তিনরাস্তা মোড়ে অস্ত্র উদ্ধার অভিযানে যায়।

এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুর্বৃত্তরা গুলি ছুড়লে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

এক পর্যায়ে গুলিবিদ্ধ জাকির হোসেনকে ইন্দুরকানী থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

ওসি আরো জানান, গত ২৪ আগস্ট ডাকাতি মামলার আসামি হিসাবে পিরোজপুরের ডিবি পুলিশ খুলনা থেকে জাকিরকে আটক করে এবং তাকে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে পুলিশ অভিযান চালায়।

পুলিশ বলছে, ‘বন্দুকযুদ্ধের’ সময় এএসআই সাহাদাত ও কনস্টেবল নাসির আহত হয়ে বর্তমানে পিরোজপুর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

অভিযানের সময় ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, দুই রাউন্ড বন্দুকের গুলি ও ১২টি গুলির খোসা ও রামদাসহ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ