ঢাকা, সোমবার 27 August 2018, ১২ ভাদ্র ১৪২৫, ১৫ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রথম দিনে সরকারি অফিসে ঈদের আমেজ

স্টাফ রিপোর্টার : পবিত্র ঈদুল আযহার ছুটি শেষ হয়েছে। এবার ২১ থেকে ২৫ আগস্ট পর্যন্ত মোট পাঁচ দিন ঈদের ছুটি কাটিয়েছেন সরকারি চাকরিজীবীরা। ঈদের ছুটির পর গতকাল রোববার ছিল অফিসের প্রথম দিন। তাই সরকারি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এদিন ছিলেন ঈদের আমেজে। ছোট-খাটো কাজ ছাড়া সবাই শুভেচ্ছা আর কুশল বিনিময়ে পার করেছেন অফিসের প্রথম দিনটি। 

ঈদুল আযহার ছুটি শেষে গতকাল সরকারি অফিস খুলেছে। গত ২২ আগস্ট ত্যাগের মহিমায় উদ্ভাসিত হয়ে মুসলমানরা নিজেদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা পালন করেছে। 

গতকাল সকাল থেকে সচিবালয়ে কর্মব্যস্ততার পাশাপাশি ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেছেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। তারা কুশল বিনিময়ের পাশাপাশি খোশ মেজাজে কাটিয়েছেন দিনটি। কোনো কোনো মন্ত্রণালয়ে অভ্যন্তরীণ সভাও হয়েছে। সরকারি হিসাব মতে ছুটি শেষে কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন ৪৫ শতাংশ কর্মচারী।

এছাড়া সরকারি প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ব্যাংক-বিমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও শেয়ারবাজারও খুলেছে। তবে ঈদের পর প্রথম কার্যদিবসে জমে ওঠেনি অনেক প্রতিষ্ঠান। রাজধানীর মতিঝিল ব্যাংকপাড়ায়ও বিরাজ করছে ঈদের আমেজ। ব্যাংকগুলোতে চিরচেনা প্রাণচাঞ্চল্য ও ব্যস্ততা এখনো অনুপস্থিত।

প্রথম কর্মদিবসে কমকর্তা ও কর্মচারীদের উপস্থিতি ছিল কম। যারা এসেছেন তাদের কাজের চাপ কম থাকায় গল্প আর ঈদের কুশল বিনিময় করে সময় পার করছেন। বাংলাদেশ ব্যাংকেও একই চিত্র। তবে ব্যাংকের অন্যান্য কর্যক্রমের মত লেনদেন কম থাকলেও নগদ টাকা উত্তোলন ও সঞ্চয়পত্রের মুনাফা তুলতে গ্রাহকরা ব্যাংকে এসেছেন। রাজধানীর ব্যাংক পাড়া মতিঝিল, দিলকুশা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ব্যাংকের একাধিক কর্মকর্তার সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিবারের মত এবারও প্রথম দিন গ্রাহকদের ভিড় কম। এবার ঈদের ছুটি টানা পাঁচদিন থাকায় উপস্থিতি বেশিরভাগ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

তারা বলেন, ঈদের ছুটির আমেজ এখনো পুরোপুরি কাটেনি। আজ (রোববার) যেসব গ্রাহক আসছেন তাদের বেশিরভাগ নগদ টাকা তুলছেন। আবার অনেকে সঞ্চয়পত্রের মুনাফা তুলতে আসছেন। অন্যান্য দিনের তুলনায় ১০ ভাগের একভাগ লেনদেন হয়েছে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কার্যক্রম শুরু না হওয়ায় বড় ধরনের কোনো লেনদেন হচ্ছে না। ছোট ছোট লেনদেন হচ্ছে। স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে আরও এক সপ্তাহ লাগবে। 

শফিকুল নামের একজন গ্রাহক জানান, কুরবানির পশু কেনাসহ বিভিন্ন খরচ করে নগদ টাকা শেষ। তাই কিছু প্রয়োজনীয় টাকা তুলতে এসেছি। আজকে অন্যান্য দিনের তুলনায় ভিড় কম বলে সময়ও কম লাগছে।

এদিকে দেশের পুঁজিবাজারও খুলেছে। সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন শুরু হয়েছে।

গ্রামের বাড়িতে থাকা প্রিয়জনের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি শেষে রেল, সড়ক ও নৌপথে রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছেন অসংখ্য মানুষ। এখনও ফিরছেন অনেকে। যানজটের রাজধানী ঢাকা এখনো চিরচেনা রুপে ফিরেনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ