ঢাকা, মঙ্গলবার 28 August 2018, ১৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জার্মানিতে ২য় বিশ্বযুদ্ধকালীন বোমা সরানো হল ১৮,৫০০ জনকে

মাটির নিচ থেকে সদ্য তোলা মচিরা ধরা একটি কাঠের ফ্রেমের সঙ্গে শক্ত করে বাধা বোমাটি দেখা যাচ্ছে           -টুইটার

২৭ আগস্ট, এনডিটিভি : জার্মানির লুডভিগশাফেন শহরে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কালীন একটি অবিস্ফোরিত বোমা পাওয়ার পর সেটি নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে।

বোমাটি পাওয়ার পর ঘটনাস্থলের আশপাশের এলাকার ১৮ হাজার ৫০০ বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয় বলে একটি আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা।

যুদ্ধের সময় মার্কিন বাহিনী বিমান থেকে ৫০০ কিলোগ্রামের এই বোমাটি ফেলেছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহের মাঝামাঝি নির্মাণ কাজ চলার সময় বোমাটির খোঁজ পাওয়া যায়। রোববার জার্মানির বোমা নিষ্ক্রিয়কারী দল সফলভাবে বোমাটি নিষ্ক্রিয় করে।

এরপর নিজেদের দাপ্তরিক টুইটার ফিডে দেয়া এক ঘোষণায় শহর কর্তৃপক্ষ বলে, “শুভ সংবাদ: বোমাটি নিষ্ক্রিয় করা হয়েছে নাগরিকরা নিজেদের বাসায় ফিরতে পারেন।”

বিবৃতির সঙ্গে একটি ছবিও পোস্ট করেছে তারা, তাতে মাটির নিচ থেকে সদ্য তোলা, মরিচা ধরা, একটি কাঠের ফ্রেমের সঙ্গে শক্ত করে বাঁধা বোমাটি দেখা গেছে।

বোমাটি পাওয়ার পর জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলীয় ওই শহরটির কর্তৃপক্ষ পূর্ব সতর্কতা হিসেবে বোমা যেখানে ছিল তার আশপাশের এক কিলোমিটার ব্যাসার্ধের মধ্যে থাকা সব বাড়ির বাসিন্দাদের সরে যাওয়ার নিন্দেশ দেয়।

বোমাটি নিষ্ক্রিয় করার পর রোববার স্থানীয় সময় দুপুর ২টার একটু পরে অল-ক্লিয়ার বার্তা দেওয়া হয়।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ৭০ বছরেরও বেশি সময় পরও জার্মানির বিভিন্ন জায়গায় অবিস্ফোরিত বোমা ছড়িয়ে আছে। এসব বোমা নাৎসি জার্মানির বিরুদ্ধে মিত্র বাহিনীর ব্যাপক বোমাবর্ষণের স্মারক হয়ে আছে।

যুদ্ধের পর থেকে এ পর্যন্ত অবিস্ফোরিত বোমার কারণে লোক সরিয়ে নেওয়ার সবচেয়ে বড় ঘটনাটি ঘটেছিল ফ্রাঙ্কফুর্টে। গত বছর ‘ব্লকবাস্টার’ নামাঙ্কিত যুক্তরাজ্যের ফেলা একটি বোমা নিষ্ক্রিয় করার আগে নগরীটির একটি এলাকার প্রায় ৬০ হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ