ঢাকা, মঙ্গলবার 28 August 2018, ১৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রংপুরে ভূমি কর্মকর্তা পদ সংকটে ভূমি কর আদায়ে বিরূপ প্রভাব

রংপুর অফিস : রংপুর জেলার অধিকাংশ ইউনিয়নে ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তার পদশূন্য থাকায় কাক্সিক্ষত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন গুলোর সাধারণ মানুষ। স্বল্প সংখ্যক কর্মকর্তা দিয়ে চলছে জেলার অফিসগুলো। অতিরিক্ত কাজের চাপে দায়িত্ব পালনে হিমশিম খাচ্ছেন তারা। ফলে ভূমি কর আদায়ে মারাত্মকভাবে ব্যাঘাত ঘটছে। 

রংপুর  জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা  গেছে, জেলায় ৭২টি ভূমি অফিস রয়েছে। এর  মধ্যে রংপুর সিটি করপোরেশনসহ কাউনিয়ার হারাগাছ, বদরগঞ্জ ও পীরগঞ্জ  পৌরসভা রয়েছে। এসব অফিসে ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ৭২ জন ও উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা পদে ৭৮ জন থাকার কথা। অনুসন্ধান নিয়ে জানা গেছে, বর্তমানে ভূমি সহকারী কর্মকর্তা রয়েছেন ১৩ জন। পদ খালি রয়েছে ৫৯ টি। অপরদিকে, উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা পদে কর্মরত রয়েছেন ৫৩ জন। পদ খালি রয়েছে ২৫টি। বিগত ৭/৮ বছর ধরে রংপুরের ভূমি অফিসগুলোতে  এই পরিস্থিতি বিরাজ করলেও এর সমাধানে কোন ধরনের কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছেনা কর্তৃপক্ষ। জনবল সংকটের কারণে অনেককেই অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে।

 বাংলাদেশ ভূমি অফিসার্স কল্যাণ সমিতি রংপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-হাসান জানান, দীর্ঘ ৮ বছর ধরে শূন্য পদগুলোয় নিয়োগ না হওয়ায় স্বল্প সংখ্যক ভূমি কর্মকর্তার উপর কাজের চাপ পড়েছে। এতে করে ভূমি কর আদায় কমে গেছে। তিনি বলেন, তিনি নিজেই কাউনিয়া উপজেলার শহীদবাগ ইউনিয়ন অফিসে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন। একই সাথে উপজেলার বালাপাড়া ভূমি অফিসেও অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে তাকে। তার মতো অনেক কর্মকর্তাকেই অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। এর কারণ হিসেবে জানা গেছে, জেলা কালেক্টরেট সহকারীদের দায়ের করা মামলায় নতুন করে নিয়োগে আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকায় অবসরজনিত কারণে ভূমি সহকারী কর্মকর্তা পদে শূন্য পদগুলোতে পদোন্নতি হচ্ছেনা। এর পাশাপাশি উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা পদে নতুন করে নিয়োগ হচ্ছেনা।  এসব কারণে জনবল সংকট ঘনিভূত হচ্ছে। বাংলাদেশ কালেক্টরেট সহকারী সমিতি, রংপুর জেলা শাখার সভাপতি (সদ্য অবসরপ্রাপ্ত)  সলিমুদ্দিন বলেন, আগে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও কালেক্টরেট সহকারীদের সমমর্যাদায় ছিল। ভূমি সহকারী কর্মকর্তাদের পদোন্নতি হলে তাদের পদগুলো আপগ্রেড করা হয়নি। এর ফলে তাদের আদালতে দারস্থ হতে হয়। আদালত ২০১৩ সালের ২২ জুলাই উন্নীত  বেতন  স্কেল, নিয়োগ ও পদোন্নতি স্থগিত করে দেয়। 

জেলা প্রশাসক অফিস সূত্র জানা গেছে, ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ভূমি কর আদায়ের লক্ষ্যমাত্রা ছিল সাধারণ প্রায় ৬ কোটি ৩২ লাখ  টাকা। আদায় হয়েছে প্রায় ৬ কোটি ৪৭ লাখ টাকা। সংস্থার লক্ষ্যমাত্রা ছিল প্রায় ১৪ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। আদায় হয়েছে প্রায় ১ কোটি সাড়ে ৫১ লাখ টাকা। ফলে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৩ কোটি সাড়ে ৪ লাখ  টাকা কম আদায়  হয়েছে। তবে সাধারণ ভূমি কর আদায় বেড়েছে প্রায় ১৫ লাখ টাকা।  এ ব্যাপারে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জানান, কর্মচারীদের মামলার কারণে ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ভূমি সহকারী কর্মকর্তা পদে পদোন্নতি ও লোকবল নিয়োগ বন্ধ রয়েছে। তিনি বলেন, এবিষয়টি বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে মন্ত্রণালয়ে জানানো হলেও এখনও সিন্ধান্ত আসেনি। তিনি ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ও উপ-সহকারী ভূমি কর্মকর্তা সংকটে ভূমি কর আদায়ে বিরুপ প্রভাব পড়ার কথা স্বীকার করেন।

মানবেতর জীবন যাপন : শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতায় পরিচালিত সিরোটসি ট্রাষ্টের দুস্থ মহিলাদের আর্থসামাজিক উন্নয়নে সহায়ক স্ব শাসিত প্রতিষ্ঠানের ২৪ জন কর্মকর্তা-কর্মচারি ২৪ মাস থেকে বেতন-ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে ।  তাদের বেতন ভাতা প্রদানের দাবীতে রংপুর বিভাগের রংপুর, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট, কুড়িগাম, নীলফামারী, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁ ও পঞ্চগড় জেলার বিভিন্ন উপজেলায় কর্মরত কর্মচারীরা রংপুর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এই অভিযোগ করেন। সংবাদ সন্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়েছে,  প্রতিষ্টানের ঢাকার  নির্বাহী পরিচালক জেবুন নাহারের  দূর্নীতি, স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার কারণে প্রতিষ্টানটি এখন ধ্বংসের দ্বার প্রান্তে দাঁড়িয়েছে।  নির্বাহী পরিচালক কৌশলে মাঠ পর্যায়ে কোটি কোটি টাকা কেন্দ্রীয় দফতরে নিয়ে যাওয়ার ফলে  কর্মকর্তাদের বেতনভাতা বন্ধ হয়ে গেছে । কর্মকর্তারা সরকারের উচ্চপর্যায়ের তদন্ত দাবি করেন । আন্দোলনকারীরা নির্বাহী পরিচালকের শাস্তির দাবী জানিয়ে তাদের বেতন ভাতা পরিষোধের জন্য বাণিজ্য মন্ত্রীর হস্থক্ষেপ কামনা করেন। সেই সাথে নির্বাহী পরিচালকের ১৮টি দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরেন। আগামী মাসের মধ্যে তাদের বেতন ভাতা পরিষোধ করা না হলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দেন ভুক্তভোগিরা। সংবাদ সন্মেলনের আগে তারা রংপুর প্রেস ক্লাবের সামনে মানবন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ