ঢাকা, মঙ্গলবার 28 August 2018, ১৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

টাকা ছিনিয়ে নেয়ার পর-

আমতলী (বরগুনা) সংবাদদাতা: বরগুনার আমতলী উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নের পূর্ব শাখারিয়া গ্রামে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে  এক অটোরিক্স্রা চালককে  গুরুতর জখম করে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার পর মাথা কামিয়ে আলকাতরা মেখে  সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায়  অটোরিক্স্রা চালকের স্ত্রী রুমা বেগম বাদী হয়ে ৪ জন কে আসামী করে  আমতলী থানায় এজাহার দায়ের করেছেন। আসামীরা হলেন মো. গোলাপ মৃধা (৪২) মো. শহিদুল ইসলাম (৩২) মো. জাকির মৃধা (৪৫) মো. কবির মৃধা (৩৮)।
মামলা  সূত্রে জানা যায়, বাদীর স্বামী নুর মোহাম্মাদ গাজী (৩০) গত ১৯ আগস্ট রাত অনুমান ৯টার সময়   পটুয়াখালীতে তার মালিকানাধীন অটোরিক্সা  বিক্রি করে শাখারিয়া বাসষ্ট্যান্ডে এসে পৌছায়। এ সময় আগে থেকেই ওতপেতে থাকা মামলার আসামীরা নুরমোহাম্মাদ গাজীকে জোর পূর্বক ১ নং আসামী গোলাপ মৃধার বাড়ীতে  নিয়ে যায়। বাড়িতে নিয়ে গোলাপ মৃধাসহ অন্য আসামীরা নুরমোহাম্মাদ (৩২) কে বেধে  বেদড়ক মারধোর করে মাথার চুল কামিয়ে  আলকাতরা মেখে দেয়। অতপর মামলার  ৩ নং আসামী  জাকির মৃধা তাহার হাতে থাকা  বাশের লাঠি দ্বারা পিটিয়ে নুর মোহাম্মাদ গাজীর  বাম  হাতের  আঙ্গুলে হাড় ভাঙ্গা জখম করে।
এবং ১ নং  আসামী গোলাপ মৃধা নুরমোহম্মাদ গাজীর কোমড়ে থাকা অটোরিক্স্রা বিক্রির ৬০ হাজার টাকা জোর পূর্বক ছিনিয়ে নিয়ে যায়  টাকা নেয়ার পর নুরমোহাম্মাদ কে  আটকিয়ে রাখে। এ খবর পেয়ে  নুরমোহাম্মাদের বাড়ীর লোকজন ও তার স্ত্রী রুমা বেগম তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় ঐ দিন রাতেই  রুমা বেগম ৪ জন কে আসামী করে আমতলী থানায় মামলা দায়ের করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ