ঢাকা, মঙ্গলবার 28 August 2018, ১৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ভিজিএফের চাল কালোবাজারে বিক্রির খবর শুনে-

কিশোরগঞ্জ, (নীলফামারী) সংবাদদাতা: নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার পুটিমারী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু সায়েম লিটন ভিজিএফ এর চাল কালোবাজারে বিক্রি করছেন এমন সংবাদ শোনার পর সাংবাদিকরা ঘটনা স্থলে ছুটে যায়।
এ সময়  চেয়ারম্যানের সামনে ট্যাগ অফিসারের কাছে চালের ডেলিভারী অর্ডার ও বিতরন রেজিষ্টার দেখতে চাইলে তিনি ক্ষেপে গিয়ে তার লালিত সন্ত্রাসী বাহিনীকে দিয়ে চেয়ারম্যান কক্ষে সাংবাদিকদের   আটক করে  রাখেন। পরে ট্যাগ অফিসার থানা পুলিশকে খবর দিলে থানা পুলিশ যাওয়ার আগেই চেয়ারম্যান সাংবাদিকদের ছেড়ে দিয়ে তাদের কাছে ক্ষমা চান।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সুত্রে জানা গেছে পুটিমারী ইউনিয়নে ভিজিএফ এর চাল বরাদ্দ দেয়া হয় ১১৬ দশমিক ৪০০ মেট্রিক টন।
গত বুধবার থেকে তিনি এসব চাল বিতরন শুরু করেন। বিতরনের শুরুতে চেয়ারম্যান আবু সায়েম লিটন ২০ কেজি চালের স্থলে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করে। পরে খবর পেয়ে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোফাখারুল ইসলাম চাল বিতরন বন্ধ করে দেন। পরের দিন বৃহস্পতবিার চেয়ারম্যান আবু সায়েম লিটন আবারো ট্যাগ অফিসার  ও উপজেলা সহকারী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল হান্নানকে না জানিয়ে চাল বিতরন শুরু করেন। 
শুক্রবার সরকারি ভাবে চাল বিতরণ বন্ধ থাকলে চেয়ারম্যান গোডাউন থেকে একটি ভ্যানে চার বস্তা ও একটি ট্রলিতে করে ১৫ বস্তা চাল পাচার করেন। শনিবার চাল  বিতরণ শুরু করলে চেয়ারম্যানের চাল পাচারের বিষয়টি জানাজানি হলে সাংবাদিকরা পরিষদে গিয়ে ট্যাগ অফিসারের কাছে চালের মজুদ, বিতরণ রেজিষ্টার ও ডেলিভেরী অর্ডরের (ডিও) কপি দেখতে চাইলে চেয়ারম্যান ট্যাগ অফিসারের সামনে, আমাদের অর্থনীতির ও মানব বার্তা প্রতিনিধি মিজানুর রহমান, ইত্তেফাক সংবাদদাতা শামীম বাবু, খোলা কাগজের প্রতিনিধি মহিউদ্দিন মাফি, দৈনিক সংবাদের প্রতিনিধি সিএসএম তপন, দৈনিক নয়া দিগন্তের শাহজাহান সিরাজ, ও আমাদের কন্ঠের শাকিল আহম্মেদ সহ ছয় জন সাংবাদিককে চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে তালাবদ্ধ করে আটকে রাখে। পরে ট্যাগ অফিসার বিষয়টি তাৎক্ষণিক পুলিশকে জানালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সাংবাদিকদের উদ্ধার করে।
প্রত্যক্ষদর্শী সবুজ মিয়া, আব্দুল মালেক , বাদশা মিয়াসহ স্ব-স্ব লোকজন এই দৃশ্য দেখে সাংবাদিকদের ছেড়ে দেওয়ার জন্য বিক্ষোভ করে।
কিশোরগঞ্জ থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এস আই) রাফায়েত হোসেন বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আপনাদের কোন অভিযোগ থাকলে লিখিত ভাবে জানাতে পারেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম আজাদকে বিষয়টি অবগত করলে তিনি বলেন আপনারা আগামী রোববার লিখিত অভিযোগ দায়ের করতে পারেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ