ঢাকা, মঙ্গলবার 28 August 2018, ১৩ ভাদ্র ১৪২৫, ১৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কচুয়ার সব্জির চারা লাগানোকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে আহত ১৪

কচুয়া সংবাদদাতা : কড়ইয়া ইউনিয়নের আকানিয়া গ্রামে সব্জির চারা রোপনকে কেন্দ্র করে গত ২৪ আগস্ট শুক্রবার বেলা ১১টায় শামছল হকের বাড়ির সামনে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে উভয় গ্রুপের ১৪ জন আহত হয়েছে।
ঘটনার বিবরণে জানা যায়, শামছল হকের বাড়ির সামনে একই গ্রামের ডংগীর বাড়ীর মোস্তফাগং জোড়পূর্বক লাউমুড়া করতে গেলে শামছল হক বাধা দিলে মোস্তফাগং পূর্ব প্রস্তুতি নিয়ে দেশীয় অস্ত্র ও লাঠি সোটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। খবর পেয়ে শামছল হকের পরিবারের লোকজনও হামলা চালায়। এতে শামছল হকের পরিবারের শামছল হক, তার স্ত্রী মাহমুদা বেগম, ছেলে মাহাবুব আলম, আলী হোসেন সহ ১০জন এবং মোস্তফার পরিবারের আব্দুল মান্নান, রিয়াদসহ ৪জন আহত হয়েছে। আহত সকলকে কচুয়া উপজেলা
স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শামছল হকের ছেলে মাহাবুব বাদী হয়ে কচুয়া থানায় মামলা দায়ের করেছে।  
বেনাপোল পোর্ট থানার শিকড়ি সীমান্তে অভিযান চালিয়ে পরিত্যক্ত অবস্থায় বিপুল পরিমাণ ভারতীয় শাড়ি উদ্ধার করেছে বিজিবি সদস্যরা। বিজিবি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি চোরাকারবারিরা ভারত থেকে বড় ধরনের একটি শাড়ির চালান এনে বেনাপোল পোর্ট থানার শিকড়ি গ্রামের মাঠের মধ্যে মজুদ করছে। যা যশোরের দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এ ধরনের সংবাদের ভিত্তিতে বেনাপোল আইসিপি ক্যাম্পের কমান্ডার নায়েব সুবেদার আবুল কাসেমের নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা সেখানে অভিযান চালিয়ে সাড়ে পাঁচ’শ পিস ভারতীয় শাড়ি উদ্ধার করে। যার সিজার মূল্য প্রায় ৩০ লাখ টাকা। ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে কর্নেল আরিফুল হক সাড়ে পাঁচ’শ পিস শাড়ির চালান আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ