ঢাকা, বুধবার 29 August 2018, ১৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খালিশপুর কলেজিয়েট গার্লস স্কুল নির্মাণ কাজ ডিসেম্বর মাসে শেষ হচ্ছে!

খুলনা অফিস : খুলনা মহানগরীর খালিশপুর কলেজিয়েট গার্লস স্কুল নির্মাণ কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। আগামী ডিসেম্বর নাগাদ প্রকল্পটির কাজ শেষ হবে বলে আশা করা যাচ্ছে। গত সোমবার নগর ভবন মিলনায়তনে প্রকল্পটির অগ্রগতি বিষয়ে অনুষ্ঠিত পর্যালোচনা সভায় এ তথ্য জানানো হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সিটি মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান।

সভায় সিটি মেয়র বলেন, নির্মাণাধীন খালিশপুর কলেজিয়েট গার্লস স্কুলটিতে পাঠদান কার্যক্রম শুরু হলে নারী শিক্ষা বিস্তারে বিশেষ ভূমিকা রাখবে। তিনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে আধুনিক প্রযুক্তি এবং সোলার এনার্জির ব্যবহার নিশ্চিত করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। এছাড়া তিনি কাজের গুণগত মান বজায় রেখে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ সমাপ্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নির্দেশ দেন।

সূত্র জানায়, গত ২৮ অক্টোবর’১৭ কলেজ ভবন নির্মাণ কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা হয়। নানা কারণে প্রকল্পের কাজ নির্ধারিত সময়ে শেষ করা যাবে না। তবে ডিসেম্বর মাস নাগাদ ভবন নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রকল্প পরিচালক কেসিসির নির্বাহী-২ প্রকৌশলী লিয়াকত আলী খান। এ হিসেবে ২০২০ সালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে বলে তিনি আশাবাদী। এতে করে অবহেলিত খালিশপুরবাসীর স্বপ্ন অবশেষে বাস্তবে রূপ নিলো।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ১১ কোটি ৯৯ লাখ ২৪ হাজার টাকা ব্যয়ে খালিশপুর কলেজিয়েট স্কুলটি পাঁচতলা ফাউন্ডেশন নেয়া হয়েছে। প্রথমে চারতলা ভবন করা হবে। পরে বাকী একতলা অর্থ প্রাপ্তি সাপেক্ষে করা হবে। ২০১৪ সালে ভারত সরকার দেশের তিনটি সিটি কর্পোরেশনে তাদের অর্থায়নে তিনটি কলেজিয়েট গার্লস স্কুল করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের নিকট প্রস্তাব দেয়। 

সে মতে, খালিশপুর ১১নং ওয়ার্ডে নিউমার্কেটে হাউজিং-এর জমিতে কলেজটি করার জন্য নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত নেয়। ১০০/৫০ ফিট বিল্ডিং-এ প্রাথমিক পর্যায়ে এইচএসসি (একাদশ) শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়ার সুযোগ থাকবে ওই কলেজে। শিক্ষাখাতে ভারত সরকারের অনুদান এটাই প্রথম। কলেজটিতে প্রাথমিক পর্যায়ে থাকবে অধ্যক্ষের বাসভবন, কম্পিউটার ও অন্যান্য যন্ত্রাংশ ক্রয়, ফার্নিচার ও স্কুলবাস। এগুলো কলেজ ভবন নির্মাণের সাথে ব্যয় ধরা হয়েছে বলে জানান কেসিসির কেসিসির নির্বাহী-২ প্রকৌশলী লিয়াকত আলী খান। অপর একটি সূত্র জানায়, আগামী ডিসেম্বর মাস নাগাদ প্রকল্পের কাজ শেষ হচ্ছে না। কারণ নানা জটিলতায় কেসিসি ভবন নির্মাণ কাজ নির্ধারিত সময় শেষ হচ্ছে না। যেহেতু আগামী ডিসেম্বরে কাজ সমাপ্ত করার জন্য সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। সেহেতু কেসিসি সভা করে ওই সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ সমাপ্ত করার জন্য তাগাদা দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, ভারত সরকারের অর্থায়নে ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে নগরীর খালিশপুর নিউমার্কেটে খুলনা সিটি কর্পোরেশন প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ