ঢাকা, বুধবার 29 August 2018, ১৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

১০ সেপ্টেম্বর বিএনপি নেতা আমির খসরুকে দুদকে তলব

স্টাফ রিপোর্টার : ঈদের ছুটির কারণে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ ও প্রস্তুতি নিতে না পারার কারণ দেখিয়ে দুদকের তলবে উপস্থিত হতে এক মাসের সময় চেয়েছেন বিএনপি নেতা আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী।
তবে তার হাজির হওয়ার জন্য নতুন করে আগামী ১০ সেপ্টম্বর দিন ঠিক করা হয়েছে বলে গতকাল মঙ্গলবার দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রনব কুমার ভট্টাচার্য্য জানিয়ে তিনি বলেন, “সকালে তার চিঠি পেয়েছি। এতে ঈদের ছুটির কারণে অভিযোগ সংশ্লিষ্ট তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করতে না পেরে প্রস্তুতি নিতে না পারার কথা জানিয়েছেন আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। একারণে তাকে আগামী ১০ সেপ্টেম্বর নতুন করে সময় দেওয়া হয়।”
সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর বিরুদ্ধে ব্যাংকে কোটি কোটি টাকার অবৈধ লেনদেনসহ বিভিন্ন দেশে মুদ্রা পাচার ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ পেয়ে মঙ্গলবার তলব করে গত ১৬ অগাস্ট নোটিস দেয় দুদক। দুদকের পরিচালক কাজী শফিকুল আলমের সই করা এ নোটিসে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্যকে সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে হাজির হতে বলা হয়।
নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে আরও মানুষ নামাতে ‘আমীর খসরুর’ একটি ফোনালাপ সম্প্রতি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে।তা সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র বলে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা দাবি তোলার পর এই বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে মামলাও হয়।ওই ঘটনার পর আমীর খসরু ওই ফোনালাপের কণ্ঠ তার নয় বলে দাবি করেন। মামলা হওয়ার পর আত্মগোপনে রয়েছেন তিনি, দলের কোনো কর্মসূচিতেও তাকে দেখা যাচ্ছে না।এর মধ্যেই আমীর খসরুকে তলবে করে দুদক নোটিস দিল।
দুদকের ওই চিঠিতে অভিযোগের বরাত দিয়ে বলা হয়, তিনি বেনামে পাঁচ তারকা হোটেল ব্যবসা, ব্যাংকে কোটি কোটি টাকা অবৈধ লেনদেনসহ বিভিন্ন দেশে অর্থ পাচার এবং নিজ, স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যের নামে শেয়ার ক্রয়সহ জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করেছেন। চট্টগ্রামের সাবেক সংসদ সদস্য আমীর খসরুর বন্দর নগরীর চকবাজার থানার মেহেদীবাগের বাসায় ঠিকানায় এ নোটিস পাঠানো হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ