ঢাকা, বুধবার 29 August 2018, ১৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দাকোপে এখনও ভিজিএফ’র চাল বিতরণ হয়নি

খুলনা অফিস : খুলনার দাকোপ উপজেলার বাজুয়া ইউনিয়নে এখনও বিতরণ করা হয়নি ঈদ উল আযহা উপলক্ষে বিতরণকৃত ভিজিএফ’র চাল। এলাকাবাসী জানান, এক সপ্তাহেরও আগে ঈদ উল আযহা উপলক্ষে সরকার গরিব ও দুঃস্থদের মধ্যে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ শুরু করেন। এই কর্মসূচির আওতায় বাজুয়া ইউনিয়নের প্রতি পরিবারে ১৮ কেজি করে চাল দিয়েছিল দায়িত্বশীলরা। কিন্তু সরকারের নিয়মানুযায়ি ২০ কেজি চাল শুধু মুসলিম পরিবার জন্য বরাদ্দ নয়। এটি হিন্দু, মুসলিম সকল ধর্মের দুঃস্থ মানুষ এ সহযোগিতা পেয়ে থাকে।  খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত বুধবার ঈদ উল আযহা উদযাপিত হওয়ার পূর্বে উপজেলার চালনা পৌরসভাসহ আটটি ইউনিয়নে ঈদের চাল যথাসময়ে বিতরণ করা হলেও বাজুয়া ইউনিয়নে বিতরণ কাজ সম্পন্ন হয়নি। নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয়রা জানান, ঈদ হয়ে যাওয়ার পর প্রায় এক সপ্তাহ হতে চললো কিন্তু এখনও আমরা ঈদের চাল পাইনি। তারা আরও জানান, ক্ষমতাশীনদলের একটি বিশেষ জনসভায় লোক হাজির করানোর জন্য ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশেরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে বলছে বাজুয়ার জনসভায় উপস্থিত না হলে এ চাল দেয়া হবে না এবং তালিকা থেকে নাম কেটে দেয়া হবে।
৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সঞ্জয় মন্ডল মুঠোফোনে এমন কৌশলে জনসভায় লোক হাজিরের কথা অস্বীকার করে বলেন, আমরা ইউনিয়নবাসিকে জনসভায় যোগদানের জন্য আমন্ত্রণ করেছিলাম। আর বলেছিলাম সরকারের অনুদান নিতে হলে সরকার দলের সভায় উপস্থিত হতে হবে। এ বিষয়ে ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য দীনবন্ধু মন্ডলের ভাষ্য মতে, ঈদের আগে মুসলিম ভাই- বোনদের মাঝে চাল বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার হিন্দু ও খ্রীষ্টান ধর্মাবলম্বীদের পরিবারের মাঝে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হবে।
বাজুয়া ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান উৎপল দাশ বলেন, খাদ্যগুদাম থেকে চাল পেতে দেরি হওয়ায় ঈদের আগে শুধুমাত্র মুসলিম পরিবারের মাঝে চাল দেয়া হয়েছিল। আর বাকি অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের মঙ্গলবারে দেয়া হয়। তিনি আরও বলেন, চাল বিতরণে বিলম্ব হওয়ার বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছিল। এ ব্যাপারে দাকোপ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মারুফুল আলম বলেন, সব ইউনিয়ন থেকে জানিয়েছে ভিজিএফ’র চাল বিতরণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। যদি বাজুয়া ইউনিয়নে বিতরণ না করে থাকে তাহলে এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ