ঢাকা, বুধবার 29 August 2018, ১৪ ভাদ্র ১৪২৫, ১৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালের ডিরেক্টর নুরুল হকের নামাযে জানাযায় শোকার্ত মানুষের ঢল

চকরিয়া সংবাদদাতা: চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালের ডিরেক্টর ও খুটাখালীস্থ জামাল হোটেলের স্বত্ত্বাধিকারী জামাল উদ্দিন সওদাগরের ছোট ভাই এস.এম নুরুল হকের নামাযে জানাযা গত রোববার সকাল ১০ টায় খুটাখালী কিশলয় আদর্শ শিক্ষা নিকেতন মাঠে সম্পন্ন হয়েছে। খুটাখালী কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মাওলানা নুরুল আবছার নামাযে জানাযার ইমামতি করেন। এতে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ শোকাহত মানুষের ঢল নামে। বিশাল নামাযে জানাযাপূর্ব সমাবেশে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন খুটাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুর রহমান প্রমুখ ব্যক্তিবর্গ। জানাযার নামাযে অংশগ্রহণ করেন খুটাখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতা বাহাদুর হক, চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এম.ডি) শফিউল আজম মুছা, মরহুমের চাচাতো ভাই আওয়ামীলীগ নেতা খালেদ মোরশেদ হিরুসহ এলাকার মুরব্বী ও সর্বস্তরের জনতা। এদিকে চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালের ডিরেক্টর ও আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়ার সদস্য এস.এম নুরুল হকের মৃত্যুতে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন চকরিয়া সিটি হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এম.ডি) ও এপেক্স ক্লাব অব চকরিয়ার প্রেসিডেন্ট এপেক্সিয়ান অধ্যাপক জুবাইদুল হক, সেক্রেটারি এপেক্সিয়ান আবদুল গফুর মানিক, চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালের পরিচালক জাহাঙ্গীর আলম, মো. মাঈনুদ্দিন সুলতান, নূরুল হুদা, ডাঃ এরফান উল্লাহ রায়হান প্রমুখ। শোকদাতাগণ মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন। উল্লেখ্য, চকরিয়া চক্ষু হাসপাতালের ডিরেক্টর এস.এম নুরুল হক (৪৩) দূরারোগ্য ব্যধিতে আক্রান্ত হয়ে শনিবার ২৫আগস্ট দুপুর পৌঁনে ৩টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তিকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী ছিল। তিনি উপজেলার খুটাখালী দক্ষিণপাড়া নিবাসী মরহুম মোজাহের আহমদের ছেলে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ