ঢাকা, বৃহস্পতিবার 30 August 2018, ১৫ ভাদ্র ১৪২৫, ১৮ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আশুলিয়ায় কারখানায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে অর্ধশত শ্রমিক ছাঁটাই

সাভার সংবাদদাতা : কারখানায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে সাভারের আশুলিয়ায় একটি সোয়েটার কারখানার প্রায় ৪৩ জন শ্রমিককে ছাঁটাই করেছে কর্তৃপক্ষ। গতকাল বুধবার সকালে আশুলিয়ার জিরাবো এলাকায় এজেক্স সোয়েটার কারখানার ৪৩ জন শ্রমিককে ছাঁটাই করে ছবিসহ নোটিশ কারখানার মুলফটকে টাঙ্গিয়ে দেন কর্তৃপক্ষ।
শ্রমিকরা জানায়, বিভিন্ন সময় ওই কারখানার ভিতরে ওই ৪৩ জন শ্রমিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে আসছিলো। পরে মালিকপক্ষ বুধবার তাদের ছাঁটাই করে ছবিসহ নোটিশ টাঙ্গিয়ে দেন কারখানার মূল ফটকে। সকালে ছাঁটাইকৃত শ্রমিকরা কারখানার প্রবেশ করতে চাইলে কারখানার নিরাপত্তাকর্মীরা তাদের কারখানায় প্রবেশ করতে দেয়নি। পরে ছাঁটাইকৃত শ্রমিকরা বাড়ি ফিরে যায়। এদিকে যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ওই কারখানার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

হামলা চালিয়ে লুটপাট করেছে সন্ত্রাসীরা
চাঁদা তোলাকে কেন্দ্র করে সাভারে একটি মার্কেটে হামলা চালিয়ে লুটপাট করেছে সন্ত্রাসীরা। ঘটনাটি ঘটেছে সাভার সদর ইউনিয়নের কলমা এলাকায় ওয়াজ প্লাজায়। এ ঘটনায় ওই এলাকার ব্যবসায়ীদের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, মঙ্গলবার রাতে সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কামাল হোসেনের ছেলে স্থানীয় যুবলীগ সদস্য রাসেল মাদবর ১০/১২ সদস্যের একদল সন্ত্রাসীদের নিয়ে কলমা এলাকায় দুটি মার্কেটের বেশ কয়েকটি দোকানে চাঁদা তুলতে যান। এ সময় ব্যবসায়ীরা চাঁদা দিতে অস্বীকার করলে সন্ত্রাসীরা ওই মার্কেটের বেশ কয়েকটি দোকানে হামলা চালিয়ে নগদ টাকা,  মোবাইল ফোনসহ মালামাল লুটপাট করে দুই জনকে পিটিয়ে আহত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে সন্ত্রাসীরা। এদিকে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যাওয়ার সময় মার্কেটের লোকজন ধরে তিন সন্ত্রাসীকে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে আহত করে। পরে তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে যুবলীগের ওই সদস্য রাসেল মাদবর পলাতক রয়েছে। এ ব্যাপারে বুধবার সকালে রাসেল মাদবরকে প্রধান আসামীকে করে সাভার মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী ব্যবসায়ীরা।
এ বিষয়ে সাভার সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সোহেল রানা বলেন, সন্ত্রাসীদের কারণে ওই মার্কেটের ব্যবসায়ীরা অতিষ্ট হয়ে পড়েছে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ