ঢাকা, বৃহস্পতিবার 30 August 2018, ১৫ ভাদ্র ১৪২৫, ১৮ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অহিংস আন্দোলনে কোনো আপত্তি নেই -ওবায়দুল কাদের

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আমি জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের নেতাদের সবিনয়ে বলবো সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আপনাদের আন্দোলনের প্রয়োজন হবে না। দেশে এক্সপেক্টেবল নির্বাচন হবে। আপনারা সেই নির্বাচনের জন্য প্রস্ততি নিন।
গতকাল বুধবার সকালে রাজধানীর শ্যামলীতে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য আবাসিক ভবন নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তুর স্থাপন শেষে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের বলেন, আপনারা যদি গণতান্ত্রিক নিয়ম মেনে অহিংস আন্দোলন করতে চান আমাদের আপত্তি নেই। কিন্তু সহিংস আন্দোলন করলে, জনগণের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।
যুক্তফ্রন্টের নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেছেন, ‘অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য আন্দোলনের প্রয়োজন হবে না। দেশে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হবে। আপনারা নির্বাচনের জন্য প্রস্ততি নিন।’
বিকল্পধারা বাংলাদেশ, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) এবং নাগরিক ঐক্য এই তিন দলের সমন্বয়ে গঠিত জোট যুক্তফ্রন্ট। মঙ্গলবার গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনের বাসভবনে এক বৈঠকের পর যুক্তফ্রন্ট ও গণফোরাম একসঙ্গে কাজ করার কথা জানায়। সেই লক্ষ্যে চার সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করা হয়েছে বলে গতকাল রাতে জানান বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। ‘জাতীয় ঐক্যের’ বিষয়ে এই বৈঠক হয় বলে জানানো হয়। বৈঠকে ছিলেন বিএনপির সঙ্গে বৃহত্তর ঐক্য প্রক্রিয়ায় সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা ডা. জাফরুল্লাহ।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘অহিংস গণতান্ত্রিক আন্দোলনে আমাদের কোনো আপত্তি নেই। কিন্তু আন্দোলন সহিংস হলে জনগণের নিরাপত্তার স্বার্থে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।’
ভোটের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য বিএনপি জোরালো কর্মসূচি দেবে, বিএনপির মহাসচিবের এই বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ফখররুলি সাহেব বলেছেন, ভোটের আগে খালেদা জিয়ার মুক্তির জোরালো কর্মসূচি দেবেন। ফখরুল সাহেব নয় বছরে যা পারলেন না, তিন মাসে তা পারবেন, এটা দেশের মানুষ বিশ্বাস করে না।’
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকারের ক্ষমতাকেন্দ্রিক উচ্চাভিলাষের কোনো সৌধ নেই, স্বপ্নের কোনো প্রাসাদ নেই যেটা তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়বে। আওয়ামী লীগের ভিত বাংলাদেশের মাটির অনেক গভীরে, দৃঢ়ভাবে প্রোথিত। এটি তাসের ঘর নয় যে ভেঙে যাবে। এটি জনগণের ভিত। কাজ, কর্ম, আদর্শ দিয়ে শেখ হাসিনা, বঙ্গবন্ধু এবং আমাদের পূর্বপুরুষেরা এই সৌধ, এই স্ট্রাকচার নির্মাণ করেছেন।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিএনপির ক্ষমতাকেন্দ্রিক স্বপ্ন তাসের ঘরের মতো ভেঙে যাবে।’
নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোনো রাজনৈতিক কর্মীকে গ্রেফতার না করা এবং সব রাজনৈতিক কর্মীর মুক্তি নিশ্চিত করা নিয়ে নতুন জোট যুক্তফ্রন্ট দাবি জানিয়েছে। এ বিষয়ে সাংবাদিকেরা দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী কাদের বলেন, ‘যাঁরা ইতিবাচক রাজনীতি করেন, যাঁদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই, সন্ত্রাস বা বিভিন্ন অপরাধের সঙ্গে জড়িত হওয়ার কোনো অভিযোগ নেই, তাঁদের অবশ্যই গ্রেফতার করা হবে না।’
গ্রেফতারের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ‘কিন্তু যাঁদের বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ আছে, মামলা আছে, আইনের বিচারে যাঁরা অপরাধী, তাঁদের অবশ্যই জনগণের নিরাপত্তা, শান্তি-শৃঙ্খলার স্বার্থে গ্রেফতার না করার কোনো কারণ নেই।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ