ঢাকা, শুক্রবার 31 August 2018, ১৬ ভাদ্র ১৪২৫, ১৯ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পাঠক চত্তরে পালিত হল জাতীয় কবির ৪২ তম মৃত্যুবার্ষিকী

গত সাতাশে আগস্ট ২০১৮ করিমগঞ্জ  উপজেলা মসজিদ সংলগ্ন উন্মুক্ত পাঠক চত্তরে আয়োজন করা হয় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪২তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা। সন্ধ্যা ৭ টায় শুরু হওয়া সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট কবি ছড়াকার শাহজাহান কবির। প্রধান অতিথি ছিলেন কবি ছড়াকার ও সাহিত্য সমালোচক তাজ ইসলাম। কবি কাজী নজরুল ইসলামের জীবন ও সাহিত্য নিয়ে বক্তব্য রাখেন  রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আবু সুফিয়ান, কবি ও আবৃত্তি শিল্পী নজরুল ইসলাম ও কবি রাকিব ওমি। কবির কবিতা আবৃত্তি করেন  আলী হায়দার কাব্য।

প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন  নজরুলের সৃষ্টিশীল সত্তাকে জানতে হবে। প্রয়োজনে নজরুল গবেষকদের কাছ থেকে তরুণদের জানার ব্যবস্থা করতে হবে। মফস্বলের প্রত্যন্ত অঞ্চলে একদল সাংস্কৃতিক কর্মীর সাহসী উদ্যোগকে প্রধান অতিথি সাধুবাদ জানান। 

সভাপতি তার বক্তব্য ক্ষোভের সাথে ব্যক্ত করেন- নজরুলের মত বিশ্বব্যক্তিত্বের মৃত্যুদিবসে উপজেলা প্রশাসনের নিরবতা আমাদেরকে হতাশ করেছে। কিন্তু তরুণদের এই উন্মুক্ত আয়োজন প্রশাসনের নিরবতার তীব্র প্রতিবাদ হিসেবে উল্লেখ করেন। গোটাদশেক তরুণ সমগ্র উপজেলাবাসীকে লজ্জার হাত থেকে বাঁচাতে এগিয়ে এল। তিনি পাঠক চত্তরে সমৃদ্ধি  কামনা করেন।” সমগ্র অনুষ্ঠানটি উপস্থানায় ছিলেন সাংস্কৃতিক কর্মী হাবিবুর রহমান বিপ্লব। বিপ্লব বলেন “সবার আগে সতর্ক থাকতে হবে আমাদের। কেউ যেন আমাদের একতায়  ফাটল ধরাতে না পারে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে "। এতে  আরো উপস্থিত ছিলেন  এশিয়ান পোষ্টের প্রতিনিধি আঃ জলিল, মোঃ ইমরানসহ অনেকেই। বৃষ্টি আঁধার উপেক্ষা করেই চলে কবিতা আবৃত্তি, আলোচনা, গান। চা পর্বের পর সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় উন্মুক্ত এই আয়োজনের।  -তাজ ইসলাম

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ