ঢাকা, শনিবার 1 September 2018, ১৭ ভাদ্র ১৪২৫, ২০ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মার্কিন জোটের হামলায় ইরাক ও সিরিয়ায় নিহতের সংখ্যা সহস্রাধিক

৩১ আগস্ট, আনাদোলু এজেন্সি: ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোটের হামলায় এখন পর্যন্ত এক হাজারেরও বেশি বেসামরিক নিহত হয়েছেন। গত বৃহ্স্পতিবার জোট কর্তৃক প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই দাবি করা হয়। 

সিরিয়ায় ২০১১ সালে শুরু হওয়া গৃহযুদ্ধে আড়াই লাখ মানুষ নিহত হয়েছেন। বাস্তুচ্যুত হয়েছেন ১০ লাখের বেশি মানুষ। সিরিয়ার চলমান সংকট নিয়ে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান বিপরীত ধর্মী। বর্তমান প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতে চায় যুক্তরাষ্ট্র। এ জন্য তারা আসাদ সরকারের বিদ্রোহ ঘোষণাকারী সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোকে অস্ত্র দিয়ে সহযোগিতা করছে এবং ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালাচ্ছে। তবে আসাদ সরকারের দাবি, আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধের নামে যুক্তরাষ্ট্র মূলত বিদ্রোহীদের সহযোগিতা করতে সরকারি বাহিনীর ওপর হামলা চালায়। আর রাশিয়া বাশার আল আসাদকে ক্ষমতায় দেখতে চায়। আসাদ সরকারের সমর্থনে রাশিয়া-ইরানও আইএস এবং বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে বিমান হামলা চালাচ্ছে। সিরিয়া সংকটকে কেন্দ্র করে রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র ছায়াযুদ্ধে মেতে উঠেছে বলে অনেকেই মনে করেন।

সিরিয়ার গৃহযুদ্ধ সাত বছর আগে শুরু হলেও মার্কিন জোট অভিযান শুরু করে চার বছর আগে। আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করলেও তাদের হামলায় অনেক বেসামরিক নিহত হয়েছেন। চলতি বছর যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা সিরিয়ান নেটওয়ার্ক ফর হিউম্যান রাইটসও জানিয়েছিলো মার্কিন জোটের হামলায় সিরিয়াতে ১ হাজার ৭৫৯ জন বেসামরিক নিহত হয়েছেন। ২০১৪ সালে ৬০টি দেশের সামরিক বাহিনীকে নিয়ে জোট গঠিত হয়।   বৃহস্পতিবার প্রকাশিত প্রতিবেদনে মার্কিন জোট জানায় তারা ইরাক ও সিরিয়াতে ৩০ হাজার বিমান হামলা চালিয়েছে। হামলায় ১ হাজার ৬১ জন সামরিক ‘ভুলবশত’ নিহত হয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ