ঢাকা, শনিবার 1 September 2018, ১৭ ভাদ্র ১৪২৫, ২০ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মিরসরাই বিএনপি, যুববদল ছাত্রদলের ৭ নেতা কারাগারে প্রেরণ

মিরসরাই (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা: আদালতে জামিন আবেদন করলে জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে মিরসরাই উপজেলা, বারইয়ারহাট পৌরসভা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের ৭ নেতাকে। মঙ্গলবার (২৮ আগষ্ট) চট্টগ্রাম চীফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলায় জামিন আবেদন করলে বিচারক কামরুন নাহার রুমী জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন।
 আত্মসমর্পন করা নেতারা হলেন উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক গাজী নিজাম উদ্দিন, বারইয়াররহাট পৌরসভা বিএনপির আহবায়ক দিদারুল আলম মিয়াজী, জোরারগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মাসুকুল আলম সোহান, হিঙ্গুলী ইউনিয়ন বিএনপি নেতা বেলাল হোসেন, উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক ইফতেখার মাহমুদ জিপসন, উপজেলা ছাত্রদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন। এরআগে গত রবিবার অন্য একটি মামলায় জামিন নামঞ্জুর করে বিএনপি নেতা সাবেক চেয়ারম্যান মুসা মিয়াকে কারাগারের প্রেরণের নির্দেশ দেয় আদালত। আসামী পক্ষের আইনজীবি ছিলেন চট্টগ্রাম আইনজীবি সমিতির সাবেক সভাপতি এডভোকেট কফিল উদ্দিন।
বিএনপি নেতাদের কারাগারে পাঠানোয় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তাদের মুক্তি দাবী করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম) বিভাগ মাহবুবের রহমান শামীম, মিরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান (সাময়িক বরখাস্তকৃত) নুরুল আমিন, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আলমগীর, উপজেলা যুবদলের আহবায়ক শাহীনুল ইসলাম স্বপন, বারইয়ারহাট পৌরসভা যুবদলের সভাপতি কামরান সরোয়ার্দী, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আবছার, মিরসরাই জাতীয়তবাদী ফোরাম সংযুক্ত আরব আমিরাতের সভাপতি নুরনবী করিম বাবলু, উপদেষ্টা শেখ খোরশেদ আলম, উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক আহবায়ক শাহ ফোরকান উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সেলিম উদ্দিন।
 প্রসঙ্গত, সম্প্রতি ঢাকায় ছাত্র আন্দোলনে উস্কানী দেয়ার অভিযোগে গত ৬ আগষ্ট জোরারগঞ্জ থানায় বিএনপি-জামায়াতের ৯ নেতার নাম উল্লেখ করে ১৮০ জনকে  অজ্ঞাত আসামী দিয়ে একটি মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় ১৪ আগষ্ট হাইকোর্ট থেকে অন্তবর্তিকালীন জামিন নেয়ার পর মঙ্গলবার নিন্ম আদালতে আত্মসমর্পণ করেন তারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ