ঢাকা, রোববার 2 September 2018, ১৮ ভাদ্র ১৪২৫, ২১ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বগুড়ায় ছাত্রলীগের হামলায় যুবদলের তিন কর্মী আহত

বগুড়া অফিস: বগুড়ায় বিএনপির প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার সময় ছাত্রলীগ নেতা কর্মীদের হামলায় যুবদলের তিন কর্মী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে ছুরিকাহত একজনের অবস্থা গুরুতর। এছাড়াও একটি মটরসাইকেল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে শহরের সাতমাথা এলাকায় এঘটনা ঘটে। ছুরিকাহত হারুনার রশিদ (২৮) আদমদীঘি উপজেলার ছাতিয়ানগ্রাম ইউনিয়ন যুবদলের সদস্য। তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
আদমদীঘি উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মাহফুজুল আলম টিকন জানান, বগুড়া জেলা বিএনপি আয়োজিত বিএনপির ৪০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত সমাবেশে যোগ দেয়ার জন্য তার নেতৃত্বে ২০-২৫ জন যুবদল নেতাকর্মী আদমদীঘি থেকে ট্রেনযোগে বগুড়া পৌঁছেন। রেলস্টেশন থেকে তারা পায়ে হেঁটে শহরের নবাবাবাড়ি সড়কে বিএনপি অফিসে যাচ্ছিলেন। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সাতমাথা এলাকায় প্রধান ডাকঘরের সামনে পৌঁছলে আওয়ামী লীগ অফিস থেকে ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা স্লোগান দিয়ে তাদের ওপর হামলা চালায়। এ সময় তারা হারুনার রশিদকে উপুর্যপরি ছুরিকাঘাত করে এবং তাদের লাঠিপেটায় আজাদুল ও আবু রায়হান নামের আরো দুইজন যুবদল কর্মী আহত হন। পরে পুলিশ হারুনার রশিদকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।
এদিকে, বেলা ১১টার দিকে বিভিন্ন সড়ক দিয়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা যখন দলীয় কার্যালয়ে যাচ্ছিলেন সেই সময় সাতমাথা এলাকায় জিলা স্কুলের গেটে কে বা কারা একটি মটরসাইকেলে (বগুড়া-হ-১১-৩৭৬০) অগ্নিসংযোগ করে। পুলিশ এবং স্থানীয় লোকজন আগুন নিভিয়ে ফেললেও মটরসাইকেলটি পুড়ে যায়। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মটরসাইকেলের মালিককে পুলিশ খুঁজে পায়নি।
বগুড়া সদর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মঞ্জুরুল হক ভুঞা জানান, ছুরিকাহত হারুনার রশিদ যুবদল কর্মী কি না তা জানা যায়নি। পুলিশের পক্ষ থেকে হাসপাতালে তার খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে। এ বিষয়ে ছাত্রলীগ নেতাদের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ