ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চূড়ান্ত দল নিয়ে প্রথম অনুশীলন করলেন জেমি ডে

স্পোর্টস রিপোর্টার: আগামীকাল মঙ্গলবার থেকে মাঠে গড়াবে দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবল লড়াই সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। এবারের সাফে উদ্বোধনী দিনে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভুটানের। টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে শেষ মুহূর্তে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছেন মামুনুল-জামালরা। এর আগে গত শনিবার রাতে বাংলাদেশের ২০ সদস্যের দল চূড়ান্ত করেছেন কোচ জেমি ডে। প্রাথমিক দলের ৩০ জন থেকে ১০ জন বাদ পড়েছেন। সর্বশেষ ৩ সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে বাংলাদেশ। ২০১১ সালে ভারতের দিল্লী, ২০১৩ সালে নেপালের কাঠমান্ডু ও ২০১৫ সালে ভারতের কেরালায় অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে মোট ৯ ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ জিতেছে মাত্র একটিতে। ড্র করেছে দুটি ম্যাচ।

দীর্ঘ তিনমাস খেলোয়াড়দেরকে খুব কাছ থেকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে সেরা খেলোয়াড়দের নিয়েই দল গড়েছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় দলের কোচ জেমি ডে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে চূড়ান্ত দল নিয়ে গতকাল রোববার প্রথমবার অনুশীলনে নেমেছে বাংলাদেশ দল। সাফে নিজেদের খেলার কৌশল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন অনুশীলনে। তবে চূড়ান্ত স্কোয়াডে এশিয়ান গেমসের সেরা একাদশ থেকে কাউকে বাদ দেননি জেমি।

কাতার, দক্ষিণ কোরিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায় ফুটবলারদের পরখ করেছেন জাতীয় দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে। কাতার ও কোরিয়ায় কন্ডিশনিং ক্যাম্প এবং ইন্দোনেশিয়ায় ছিল এশিয়ান গেমস। এসব দৌঁড়ঝাপের মধ্যে কোচের চোখ ছিল সাফ সুজুকি কাপের দিকে।

দক্ষিণ এশিয়ার বিশ্বকাপখ্যাত এ টুর্নামেন্টের জন্য একটা দল তৈরির জন্যই ফুটবলারদের নিয়ে তিন মাস ধরে কাজ করছেন ৩৮ বছরের এ কোচ। অবশেষে সাফ শুরুর তিনদিন আগে বেছে নিয়েছেন তার সেরা ২০ খেলোয়াড়। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এখনো দেননি। এশিয়ান গেমস থেকে ফেরার পর নীলফামারীতে শ্রীলংকার বিরুদ্ধে ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচে কিছু সিনিয়র খেলোয়াড়কে পরীক্ষা করেছেন জেমি ডে। কিন্তু সিনিয়রদের পারফরম্যান্স জেমির চোখ খুলে দিয়েছে। শ্রীলংকার কাছে হারে তিনি বুঝে ফেলেছেন লড়াইটা তরুণদের নিয়েই করতে হবে। তারপরও অভিজ্ঞ কয়েকজন খেলোয়াড় ২০ জনের দলে রেখেছেন জেমি ডে।

১২ সপ্তাহ পরখ করে সেরা ২০ জনকে বেছে নিয়েছেন কোচ। অনেক দিন পর জাতীয় দলের অনুশীলন হলো বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে। এই ভেন্যুতেই ২০০৩ সালে প্রথমবারের মতো সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এই ভেন্যুতেই মঙ্গলবার হারানো সেই ট্রফি উদ্ধারের মিশন শুরু করবে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

সকাল পৌনে ১০ টায় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে নেমে ঘন্টা দেড়েক চূড়ান্ত দলকে অনুশীলন করালেন জেমি ডে। শেষ দিকে মাঠ ছোট করে দুইভাগে ম্যাচও খেলালেন জামাল-সুফিলদের। গোলপোস্টে আশরাফুল ইসলাম রানা, রক্ষণে তপু বর্মন, বিশ্বনাথ ঘোষ, টুটুল হোসেন বাদশা, ওয়ালি ফয়সাল, মাঝমাঠে মাসুক মিয়া জনি, বিপলু আহমেদ, আতিকুল ইসলাম ফাহাদ, জামাল ভুইয়া, আক্রমণে মাহবুবুর রহমান সুফিল ও সাদউদ্দিনকে এক দলে রেখে সাফের একাদশটাকেই পরখ করার চেষ্টা করলেন কোচ।

জাফর ইকবাল ছাড়াও এশিয়ান গেমসের দল থেকে বাদ পড়েছেন মতিন মিয়া, রহমত মিয়া, আবদুল্লাহ, আনিসুর রহমান, মনজুরুর রহমান, মাহফুজ হাসান প্রীতম, ফজলে রাব্বী।

 এশিয়ান গেমসের স্কোয়াডে ছিলেন না কিন্তু দলের সঙ্গে সেখানে ছিলেন সেই ৭ জন ওয়ালি ফয়সাল, ফয়সাল মাহমুদ, সাখাওয়াত রনি, ইমন মাহমুদ বাবু, সোহেল রানা, নাসির উদ্দিন চৌধুরী ও মামুনুল ইসলামকে সাফের দলে রেখেছেন কোচ। কোরিয়া ও ইন্দোনেশিয়া সফরে ক্যাম্পে না থাকলেও গোলরক্ষক শহিদুল আলম সোহেলকে কোচ বিবেচনায় নিয়েছেন সাফের স্কোয়াডে। এই সোহেলের ভুলেই নীলফামারীতে বাংলাদেশ ১-০ গোলে হেরেছে শ্রীলংকার কাছে।

বাংলাদেশ দল

আশরাফুল ইসলাম রানা, শহিদুল আলম সোহেল, তপু বর্মন, নাসির উদ্দিন চৌধুরী, বিশ্বনাথ ঘোষ, টুটুল হোসেন বাদশা, ওয়ালি ফয়সাল, সুশান্ত ত্রিপুরা, মাসুক মিয়া জনি, মামুনুল ইসলাম, ইমন মাহমুদ বাবু, ফয়সাল মাহমুদ, সোহেল রানা, বিপলু আহমেদ, আতিকুল ইসলাম ফাহাদ, জামাল ভুইয়া, শাখাওয়াত হোসেন রনি, মাহবুবুর রহমান সুফিল, সাদউদ্দিন ও রবিউল হাসান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ