ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

তৃতীয় ধাপে বাদ পড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারি করার দাবি

জাতীয়করণের দাবিতে গতকাল রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে কর্মসূচি পালনের উদ্দেশে শিশু কল্যাণ ভবন থেকে রওনা হলে পুলিশী বাঁধা পেয়ে সেখানেই অবস্থান কর্মসূচি পালন করে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ সমন্বয় পরিষদের শিক্ষকবৃন্দ -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ সমন্বয় পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত এক সমাবেশে শিক্ষক নেতারা দাবি করে বলেন, তৃতীয় ধাপে বাদ পড়া বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারিকরণ করতে হবে। জাতীয়করণ করা না হলে লাগাতার অনশন কর্মসূচি পালন করবে বলে ঘোষণা দিবে বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ সমন্বয় পরিষদ।
গতকাল রোববার তোপখানায় অবস্থিত শিশুকল্যাণে এক সমাবেশে এই দাবির কথা তাঁরা জানায়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ সমন্বয় পরিষদের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মেহেদী হাসান কবির ও সাইদুল ইসলাম সাইদুরসহ বিভিন্ন জেলা থেকে আগত শিক্ষকরা।
পরিষদের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মেহেদী হাসান কবির বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি বিভিন্ন সংগঠনের নামে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কোনও ফলাফল না পাওয়ায় সংগঠনগুলো ঐক্যবদ্ধ হয়ে কর্মসূচি প্রণয়ন করবে যাতে সাধারণ শিক্ষকদের প্রাণের দাবি তৃতীয় ধাপে জাতীয়করণ থেকে বাদ পড়া বিদ্যালয়গুলো জাতীয়করণের উদ্যোগ গ্রহণ করে এবং তা বাস্তবায়নের কাজ ত্বরান্বিত হয়।’
তিনি বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে কোনও দিকনির্দেশনা না আসলে আগামীতে সমন্বয় কমিটি প্রতিটি জেলাতে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হবে। আগস্ট মাসে শোকের মাস হওয়ায় এ সময় কোনও কর্মসূচি দেয়া হয়নি। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে তাদের সমাবেশ করার কথা থাকলেও পুলিশের বাধাঁর কারণে তারা ওখানে সমাবেশ করতে পারেনি। পরে শিক্ষকরা তোপখানার শিশু কল্যাণে মিলিত হয়ে সমাবেশ করে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ