ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাতক্ষীরা শিবিরের সাবেক জেলা সভাপতি খোরশেদকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা : সাতক্ষীরা জেলা শিবিরের সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলমকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।  রবিবার বিকাল ৩টার দিকে তালা উপজেলার সুজনশাহা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তুলে  নেয়া হয়। আঙ্গর নামে এলাকাতে সে পরিচিত ছিল। আঙ্গুরের পিতা হাবিবুর রহমান ও স্ত্রী খাদিজা খাতুন এতথ্য জানান।
আঙ্গুরের স্ত্রী খাদিজা খাতুন জানান, বিকাল ৩টার দিকে দুইজন অপরিচিত লোক তাদের বাড়িতে প্রবেশ করে।  বাঁধা দিলে  ঘরের মধ্যে জোর করে ঢুকে তার স্বামী আঙ্গুরকে ধরার চেষ্টা করে। এসময় আঙ্গুর দৌড় দিলে তারাও তার পিছে পিছে দৌড় দিয়ে আঙ্গুরকে ধরে ফেলে। পরে মটরসাইকেলযোগে তাকে তালা থানার দিকে নিয়ে যায়। খাদিজা খাতুন আরো জানায়, তার স্বামীর খোঁজে তালা থানাতে যেয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে কথা বলি। পুলিশ কর্মকর্তা জানান, তার স্বামীকে আটকের বিষয়ে তারা কিছুই জানেন না।
আঙ্গুরের বাবা হাবিবুর রহমান জানান, তার ছেলেকে তালা থানাতে না নিয়ে খলিলনগর পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে গেছে বলে একব্যক্তি তাকে জানিয়েছে। তার দাবি আঙ্গুরের বিরুদ্ধে কোন গ্রেফতারি পরওয়ানা নেই। তা হলে কেন তাকে তাড়িয়ে ধরতে হল। আর যেই ধরুক পুলিশের দায়িত্ব হল তাকে খুঁজে বের করা। তার বিরুদ্ধে যে সব রাজনৈতিক হয়রানিমূলক মামলা ছিল তার সবকটিতে সে জামিনে ছিল।
এব্যাপারে তালা থানার ওসির  মো. হাসান হাফিজুর রহমান আটকের বিষয়টি এড়িয়ে যান। বলেন, অভিযান শেষে ফিরে আসলে বলতে পারবো।
অন্যদিকে সাতক্ষীরা সদর পূর্ব-উপজেলা জামায়াতের আমীর প্রভাষক ওয়ারেশকে আটক করেছে সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশ। আটকের দুই দিন পার হওয়ার পরও তাকে আদালতে না পাঠানোতে পরিবারটি উদ্বিগ্নে রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ