ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাভার ও আশুলিয়ায় পৃথক স্থানে পানিতে ডুবে ৩ শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু

সাভার সংবাদদাতা: সাভার ও আশুলিয়ায় পৃথক স্থানে বিলের পানিতে গোসল করতে নেমে দুই কিশোর ও নৌকা নিয়ে বেড়াতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক স্কুল ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার দুপুরে আশুলিয়ার পলাশবাড়ি ডগরতলি এলাকায় ধইলা বিল ও সাভার পৌর এলাকার দক্ষিণ রাজাশন মোল্লাবাড়ি বিলে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলো, আশুলিয়ার পলাশবাড়ি ডগরতলি এলাকার সিরাজুল ইসলামের ছেলে মো. সেলিম হোসেন সোহাগ (১২), প্রতিবেশী বন্ধু মাসুদ রানা (১১) ও সাভার পৌর এলাকার দক্ষিণ রাজাশন মহল্লার আবুল কালামের ছেলে মো. চয়ন (১৬)।
নিহতের বন্ধু ও স্থানীয় উদ্ধারকারীরা জানায়, রবিবার সকাল ১১ টার দিকে ধইলা বিলে গোসল করতে যায় মাসুদ রানা, সোহাগ ও ইকবালসহ ছয় জন। এসময় তিন জন বিলের পানিতে গোসল করলেও বাকিরা তীরেই দাড়িয়ে ছিল। হঠাৎ স্রোতে তারা ভেসে যেতে থাকলে ইকবাল সাতরে তীরে উঠে আসে। কিন্তু মাসুদ রানা ও সোহেল স্রোতে তলিয়ে যায়। এরপর স্থানীয়রা দীর্ঘক্ষণ খোঁজাখুঁজির প্রায় ২ ঘন্টা পর দুপুর ১টার দিকে মাসুদ রানাকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
এসময় তারা অভিযোগ করেন, খবর দেওয়া হলেও বিলম্বে দুপুর দেড়টার দিকে ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌছে নিখোঁজ সোহাগের লাশ উদ্ধার করে।  ডিইপিজেড ফায়ার সার্ভিস ডুবরি দলের লিডার আব্দুস সালাম নিখোঁজ হওয়া দুই কিশোরকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
অন্যদিকে শনিবার দিনগত রাতে সাভার পৌর এলাকার দক্ষিণ রাজাশন মহল্লার আবুল কালামের ছেলে চয়ন স্থানীয় মোল্লাবাড়ি বিলে বন্ধুদের সঙ্গে নৌকা নিয়ে ঘুরতে যায়। রাতে বাসায় ফেরার সময় লগি দিয়ে নৌকা চালানোর একপর্যায়ে উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া একটি বৈদ্যুতিক তারের সঙ্গে জড়িয়ে ছিটকে পানিতে পড়ে যায় সে। খবর পেয়ে সাভার ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই স্থানীয়রা মৃত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গুরুতর আহত মাইনুল হক হৃদয় (১৬) নামে এক ছাত্রকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ