ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজধানীতে ফাঁস দিয়ে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

স্টাফ রিপোর্টার: যাত্রাবাড়ী সুতিখালপাড় এলাকার একটি বাসায় আনিকা আক্তার (১৭) নামে এক কলেজ ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন তার স্বজনরা। গতকাল সকাল ৬টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা বেলা ১২টার দিকে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
আনিকা মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলার মানিকনগর গ্রামের আমির হোসেনের মেয়ে। বর্তমানে যাত্রাবাড়ী সুতিখালপাড় এলাকায় খালা শাহনাজ পারভীনের বাসায় থাকতো। সে সেন্ট্রাল উইমেন্স কলেজের একাদশ শ্রেণিতে পড়াশুনা করতো।
আনিকার খালাত ভাই রুহুল আমিন জানায়, একটি ছেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল আনিকার। গতকাল রোববার আনিকার ডায়েরি থেকে ছেলেটার একটি চিঠি পায় তার খালা। এ নিয়ে বকাঝকা করে আনিকাকে।
রুহুল আমিন আরও জানায়, বিষয়টি আনিকার বড় ভাই রবিউল ইসলামকে জানানো হয়। রবিউল ফোনে আনিকাকে বকাঝকা করে। পরে অভিমান করে ওই দিন ভোরে বাথরুমে ঢুকে ঝর্নার সঙ্গে নিজের ওড়না দিয়ে ফাঁস দেয়। অনেক্ষণ ধরে বাথরুম থেকে না বেরুলে দরজা ভেঙ্গে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।
ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ বক্সের ইনচার্জ (এসআই) বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানায়, মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।
পৃথক ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু : রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় অজ্ঞাত (৫০) ও ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় অজ্ঞাত (২৫) এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল রোববার ভোর ও সকালে এসব দুর্ঘটনা ঘটে।
বিমানবন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবু সাঈদ জানান, ভোরে বিমানবন্দর থানার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে অজ্ঞাত যানবাহনের চাপায় ঘটনাস্থলেই মারা যান ওই ব্যক্তি। পরে খবর পেয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়েছে। মৃত ব্যক্তির পরনে ছিল সবুজ চেক শার্ট ও চেক লুঙ্গি।
এদিকে ঢাকা রেলওয়ে থানার (কমলাপুর) সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) রবিউল্লাহ জানান, সকালে ক্যান্টনমেন্ট ও বনানী স্টেশনের মধ্যবর্তী স্থানে সিলেটগামী পারাবত এক্সপ্রেসের ধাক্কায় ঘটনা স্থলেই মারা যান। খবর পেয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়। মৃত যুবকের পরনে ছিলো লাল-নীল চেক শার্ট ও কালো প্যান্ট।
গৃহবধূর আত্মহত্যা : নারিন্দা শরৎগুপ্ত রোডের একটি বাসায় স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে অর্থি দাস (২৫) নামের এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গতকাল দুপুর ১টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা ২টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করে। মৃত অর্থি ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা উপজেলার উচ্চপাড়া গ্রামের ব্যাংক কর্মকর্তা দীলিপ দাসের স্ত্রী। বর্তমানে নারিন্দার শরৎ গুপ্ত রোডের একটি ৬ তলা বাসায় ভাড়া থাকতেন।
স্বামী দীলিপ জানান, স্ত্রী ও এক সন্তান নিয়ে নারিন্দা এলাকায় তিনি ভাড়া থাকতেন। কয়েক দিন আগে ব্যাংকের কয়েকজন মিলে সিলেটে ঘুরতে গিয়েছিলেন। সকালে সিলেট থেকে বাসায় ফিরতে দেরি হওয়ায় তার উপর অভিমান করে।
গতকাল স্বামী আরও জানান, আজ তাদের জন্মাষ্টমীর পূজা। স্ত্রীকে নিয়ে পূজায় যাবে বললে স্ত্রী বলে আজকে পূজায় যাবে না, আগামীকাল যাবে। কিন্তু আগামীকাল তার ব্যাংকে মিটিং আছে, সে যেতে পারবে না। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া লাগে। একপর্যায়ে স্ত্রী ঘরের দরজা বন্ধ করে ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস দেয়। টের পেয়ে স্বামী দীলিপ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে।
ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ বক্সের উপ পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।
বাড্ডায় মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ১০ : বাড্ডা এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান চালিয়ে মাদকসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ। এদের কেউ মাদকসেবী আবার কেউ মাদক ব্যবসায়ী রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল রোববার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত মধ্য বাড্ডা, দক্ষিণ বাড্ডা, মেরুল বাড্ডা ও সাঁতারকুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ। ডিএমপির গণমাধ্যম শাখার অতিরিক্ত উপ কমিশনার ওবায়দুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে বাড্ডা এলাকায় একটি অভিযান চালানো হয়। ঈদের পর অনেকেই সুযোগ নিয়ে মাদক বিক্রি করছে আবার কেউ সেবন করছে। এজন্য এই অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ২৩৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৫০০ গ্রাম গাঁজা ও ৩৫০ পুরিয়া হেরোইন জব্দ করা হয়। একই সাথে ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘বাড্ডা থানা পুলিশের পাশাপাশি গোয়েন্দা পুলিশ ও ডগ স্কোয়াড অভিযানে অংশ নেয়। ঈদের পর এটি প্রথম মাদকবিরোধী অভিযান। মাদক নির্মূল করতে ডিএমপির অন্যান্য এলাকাতেও অভিযান অব্যাহত থাকবে।’এছাড়া অভিযানের সময় পরোয়ানাভুক্ত একজন পলাতক আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ