ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সোনাতলায় চাকরির টাকা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে বসতবাড়ি ভাংচুর

সোনাতলা (বগুড়া) সংবাদদাতা: বগুড়া সোনাতলায় টাকা চাওয়া কেন্দ্র করে দুলু মন্ডলের  বসতবাড়ি ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। এঘটনায় দুলু মন্ডলের স্ত্রী মোছাঃ জামিলা বেগম নিজে বাদি হয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। দুলু উপজেলার মধুপুর ইউনিয়নের শালিকা পুর্বপাড়া গ্রামের মৃত কছিম মন্ডলের ছেলে।
অভিযোগসূত্রে জানা যায়, গত কোঠায় সেনাবাহিনী সিভিল পদে চাকরি দেয়ার নামে উপজেলার তেকানীচুকাইনগড় ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের মোঃ মাহবুর খন্দকারের ছেলে জুয়েলের কাছ থেকে নগদ ৯ লক্ষ টাকা নেয় দুলু মন্ডল। কিন্তুদুলু মন্ডল জুয়েলকে ঐ চাকরি দিতে ব্যার্থ হলে জুয়েল চাকরির জন্য দেয়া টাকা দুলুর কাছ থেকে ফেরত চায় এবং সর্ত মোতাবেক দুলু জুয়েলকে নগত সারে ৬ লক্ষ টাকা ফেরত দেয় আর বাকি ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা গত ২১/০৮/২০১৮ ইং তারিখে ফেরত দেবে বলে সময় চাইলে জুয়েল ও তার পরিবার তাতে সম্মতি জ্ঞাপন করে। সেই মোতাবেক দুলু টাকা জোগার করে জুয়েলকে তার অবশিষ্ট পাওনা টাকা ফেরত দেয়ার জন্য খবর দেয়। কিন্তু তা উপেক্ষা না করে ঐদিনই অভিযোগে উল্লেখ্য বিবাদী, মাহবুর খন্দকার, জুয়েল রানা, মোঃ শ্যামল সর্ব সাং- বালিয়াডাঙ্গা, থানা- সোনাতলা জেলা- বগুড়া এবং মোঃ মুকুল মিয়া, মোঃ ইমন, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম সর্ব সাং- দইচড়া, থানা- সাঘাচা জেলা- গাইবান্ধাগন সহ অজ্ঞাত আরো ৮/১০ জন লোহার রড, শাবল, রামদা ইত্যাদি সঙ্গে এনে বে-আইনি জনতায় দলবদ্ধ হয়ে অভিন্ন উদ্দেশ্যে আমার বসতবাড়িতে অনধিকার প্রবেশ করে ১টি মটর সাইকেল, ১টি সারে চৌদ্দ সেপ্টি সিঙ্গার ফ্রিজ, ২টি মোবাইল ফোন, ২ ভরি স্বর্ণ অলংকার, ৩টি সিলিং ফ্যান, ১টি সোলারের ব্যাটারি, ঘড়ে থাকা নগত ৩ লক্ষ টাকাসহ ঘড়ের বিভিন্ন আসবাবপত্র একটি মাইক্রোবাসযোগে দুপুর আনুমানিক ১টার সময় জনসম্মুখে লুটপাট করে নিয়ে যায় যার সর্বমূল্য প্রায় ৬ লক্ষ টাকা। তাই এ বিষয়ে বাদীগণ তদন্ত সাপেক্ষে আইনের সহায়তা কামনা করছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ