ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

পাবনা জেলা বিএনপির সভাপতি মেজর (অব.) খন্দকার সুলতান মাহমুদের ইন্তেকাল ॥ বিভিন্ন মহলের শোক

খন্দকার সুলতান মাহমুদ

পাবনা সংবাদদাতা: পাবনা জেলা বিএনপির সভাপতি ও বর্ষিয়ান রাজনীতিবিদ মেজর (অব.) খন্দকার সুলতান মাহমুদ (কেএস মাহমুদ) (৭৬) আর নেই। (ইন্নালিল্লাহে ------রাজেউন)। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর সোয়া ১২ টার দিকে সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুর খাঁজা ইউনুস আলী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ৩১শে আগস্ট দুপুর ২.১৫ঘটিকার সময় পাবনা পুরাতন টেকনিক্যাল (ভোকেশনালে) মাঠে তার নামাজে জানাজা শেষে তাকে পাবনা আরিফপুর গোরস্থানে দাফন করা হবে।
তার মৃত্যুতে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জেলা বিএনপির দফতর সম্পাদক জহুরুল ইসলামে মাধ্যমে জেল কারাগার থেকে বিএনপির চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, পাবনা জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার হাবিবুর রহমান তোতা,সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুস সামাদ খান মন্টুসহ পৃথক পৃথক বানীতে বিএনপির সভাপতি মেজর (অব.) কেএস মাহমুদের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও শোক জানিয়েছে পাবনা জেলা বিএনপি,জেলার সকল অংসংগঠন ও পাবনা জেলার সকল উপজেলা এবং পৌর বিএনপির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকসহ সর্বস্তরের নেতাকর্মিরা। শোক জানিয়েছে বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিব,নজমুল হক নান্নু,সাবেক এমপি এ্যাডভোকেট সেলিম রেজা হাবিব,সিরাজ সরদার, জহুরুল ইসলাম বাবু,পাবনা সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি একেএম মুসা,সাধারণ সম্পাদক রেহানুল ইসলাম বুলাল,পৌর বিএনপির সভাপতি সাবির হাসান বাচচু,সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম লালু ,ইশ্বরদী উপজেলা বিএনপির সভাপতি সামসুদ্দিন মালিথা,সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন বিশ্বাস,পৌর বিএনপির সভাপতি আকবর আলী বিশ্বাস,সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া পিন্টুসহ বিভিন্ন উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ