ঢাকা, সোমবার 3 September 2018, ১৯ ভাদ্র ১৪২৫, ২২ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জমির ভাগ চাওয়াকে কেন্দ্র করে বাড়ি ভাংচুর

লালমনিরহাট সংবাদদাতা: লালমনিরহাটে বড়ভাইয়ের কাছে জমিরভাগ চাওয়াকে কেন্দ্র করে ছোট ভাইয়ের বাড়ী ভাংচুর করে উল্টো ওই বাড়ীর মালিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। অভিযোগে জানাগেছে লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা ইউনিয়নের ব্যাপারীটারী সংলগ্ন আমজাদ হোসেনের বসত বাড়ীর জমির ভাগ চাওয়াকে কেন্দ্র করে আপন বড়ভাই আনছার ব্যাটালিয়নের সদস্য আনেছ আলী চাকুরী থেকে ছুটিতে এসে আপন ছোটভাই আমজাদের বাড়ীর ৩ টি ঘর ও আসবাবপত্র ব্যাপক ভাংচুর করে। খবর পেয়ে আমজাদ হোসেন ঢাকা থেকে এসে ভাংচুরের বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্যকে জানালে আনেছ আলী ক্ষিপ্ত হয়ে উল্টো তার ছেলে আরিফুল ইসলাম টুটুলের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে আমজাদ হোসেনকে ব্যাপক মারপিট করে। তারা এসব অপকর্ম আড়াল করতে উল্টো আমজাদের বিরুদ্ধে ছিনতাই মামলা লালমনিরহাট সদর থানায় দায়ের করে যার মামলা নং-৬।  এতটাই দুর্দান্ত আনেছ আলী সবসময় তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমকে দিয়ে একের পর এক মামলা করেই আসছে। তাদের মিথ্যা মামলার হয়রানীর স্বীকার সারোয়ার ব্যাপারী, আনোয়ার হোসেন ও আমজাদ হোসেন এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট প্রাশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে। সরেজমিনে গেলে এলাকাবাসী জানান ওরা ২ মায়ের ৮ ভাই তার মধ্যে আনেছ আলী আনোয়ার হোসেন ও আমজাদ হোসেন এক মায়ের। অপরদিকে সারোয়ার ব্যাপারী সহ ৫ ভাই আর এক মায়ের। আনেছ আলী বাকী ভাইদের জমির ভাগ না দেয়ায় দীর্ঘ দিন ধরে ঝগড়া বিবাদ চলে আসছিল। ক্ষতিগ্রস্ত আমজাদ হোসেন জানান বাবার দেয়া মুল্যবান ১০ শতক জমি যার দাগনং-৬১৪০ ও ৬১৩৯ এর ভাগ চাইলে আনেছ আলী ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রসী হামলা ও তাদের দায়ের করা মিথ্যা মামলায় হয়রানীর স্বীকার হতে হয়। এছাড়া আনেছ আলী ও তার সন্তাসী ছেলে আরিফুল সপরিবারকে মেরে ফেলার হুমকি অব্যহত রেখেছে। উক্ত আনেছ আলী লালমনিরহাট সদর উপজেলার গোকুন্ডা (ব্যাপারীটারী) মরহুম ইব্রাহীম আলীর ছেলে সে এতটাই দুর্দান্ত এলাকাবাসী ভয়ে প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। তবে উভয় পক্ষে যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হতে পারে বলে এলাকাবাসী জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ