ঢাকা, মঙ্গলবার 4 September 2018, ২০ ভাদ্র ১৪২৫, ২৩ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চুয়াডাঙ্গার ডিবি কার্যালয় থেকে হ্যান্ডকাপসহ আসামী পলায়নের ঘটনায় ৩ পুলিশ বরখাস্ত ॥ তদন্ত কমিটি গঠন

চুয়াডাঙ্গা সংবাদদাতা : চুয়াডাঙ্গায় অস্ত্রসহ গ্রেফতারের পর জেলা গোয়েন্দা কার্যালয় থেকে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার জাহিদ পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ৩ পুলিশ সদস্যকে বরখাস্ত ও অতিরীক্ত পুলিশ সুপারকে প্রধান করে ৪ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি  করা হয়েছে। রোববার (২ সেপ্টেম্বর) ভোরে হ্যান্ডকাপ পড়া অবস্থায় আসামি জাহিদ পালিয়ে যায় ।
জানা গেছে, গত শনিবার রাতে জেলার জীবননগর উপজেলার কর্চাডাঙ্গা গ্রাম থেকে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সর্দার জাহিদ হাসান (৩৪) কে একটি কাটা রাইফেলসহ গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। জাহিদ হাসান জেলার জীবননগর উপজেলার কর্চাডাঙ্গা লাইনপাড়ার মকবুল হোসেনের ছেলে। তার বিরুদ্ধে ডাকাতি ও অস্ত্র মামলা রয়েছে। গ্রেফতারের পর জেলা গোয়েন্দা কার্যালয়ে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে তাকে একটি কক্ষে আটক রাখা হয়।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, জেলা গোয়েন্দা কার্যালয়ে আটক থাকা অবস্থায় হ্যান্ডকাপ পরিহিত জাহিদ ভোরে কৌশলে পালিয়ে যায়। রোববার দুপুরে ঘটনাটি জানাজানি হলে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।
চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কলিমুল্লাহ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগে মহিদুল, মাসুদ ও মাহমুদুল হাসান নামে তিন পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কলিমুল্লাহকে আহ্বায়ক করে পালিয়ে যাওয়া ঘটনাটি তদন্তের জন্য ৪ সদস্যের কমিটি গঠন করেছেন। জাহিদ হাসানকে আটক করতে রবিবার সন্ধ্যা থেকে সম্ভাব্য এলাকায় ব্যাপক অভিযান চলছে।
জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহমুদুর রহমান জানান, জাহিদের বিরুদ্ধে গত শনিবার রাতে ডিবির এসআই আশরাফ বাদী হয়ে জীবননগর থানায় একটি মামলা করেন। মামলা নং ২, তারিখ: ০১/০৮/১৮।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ