ঢাকা, বুধবার 5 September 2018, ২১ ভাদ্র ১৪২৫, ২৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জার্মানিতে বর্ণবাদবিরোধী কনসার্টে হাজার হাজার মানুষের সমাগম

জার্মানিতে বর্ণবাদবিরোধী কনসার্টে উপস্থিত হয় হাজার হাজার সঙ্গীতপ্রেমী

৪ সেপ্টেম্বর, বিবিসি : বর্ণবিদ্বেষের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে এক অভিনব উদ্যোগ দেখা গেলো জার্মানির পূর্বাঞ্চলীয় শহর শেমনিৎস-এ। গত সোমবার বর্ণবাদবিরোধিতায় সেখানে আযোজন করা হয় এক উন্মুক্ত কনসার্টের। আর তাতে যোগ দেন প্রায় ৬৫ হাজার মানুষ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদন থেকে এ কথা জানা গেছে। গত মাসে শেমনিৎস শহরে ৩৫ বছর বয়সী এক জার্মান নাগরিককে মারাত্মকভাবে ছুরিকাঘাতের জন্য দুই অভিবাসীকে সন্দেহভাজন হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। এর পর থেকে শহরটিতে উগ্র ডানপন্থীদের সমাবেশ এবং এর বিরুদ্ধে পাল্টা বিক্ষোভ দেখা যাচ্ছে। উগ্র ডানপন্থীরা নিজেদেরকে অন্য মানুষদের থেকে আলাদা বিবেচনা করে স্লোগান দিচ্ছে: ‘আমরা মানুষ’। গত সোমবার বর্ণবাদবিরোধীদের উদ্যোগে আয়োজিত কনসার্টে পাল্টা স্লোগান দেওয়া হয়। বলা হয়, ‘আমরা আরও অনেকে আছি’। অনেকে আবার স্লোগান দিতে থাকে-‘নাৎসিরা বেরিয়ে যাও’।

সোমবার সন্ধ্যায় ছুরিকাঘাতে আহতদের জন্য এক মিনিটের নীরবতা পালন শেষে কনসার্ট শুরু হয়। কিছুক্ষণ পরই ক্রাফটক্লুব ব্যান্ড দলের এক গায়ক উপস্থিত দর্শক-শ্রোতাদের উদ্দেশে বক্তৃতা দেন। তিনি বলেন: ‘আমরা এখানকার স্থানীয় নই। আমরা এমন কোনও ভ্রান্ত ধারণা নিয়ে বসে নেই যে ভাবব একটি কনসার্ট করলেই পুরো বিশ্ব বেঁচে যাবে। কিন্তু কখনও কখনও আপনারা যে একা নন তা দেখানোটা জরুরি হয়ে পড়ে।’

অবশ্য, কনসার্টের বিরোধিতাও দেখা গেছে। নিজের ফেসবুক পেজে কনসার্টের ইভেন্টটি পোস্ট করায় কতিপয় কনজারভেটিভের সমালোচনার শিকার হন জার্মান প্রেসিডেন্ট ফ্র্যাংক ওয়াল্টার স্টেইনমিয়ার। অভিযোগ করা হয়, কনসার্টে অংশগ্রহণকারী ব্যান্ড দলগুলোর একটিকে অতীতে উগ্র বামপন্থী সহিংসতায় উসকানি দেওয়ার জন্য বিচারের মুখোমুখি করা হয়েছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ