ঢাকা, বুধবার 5 September 2018, ২১ ভাদ্র ১৪২৫, ২৪ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

স্ত্রীর দেওয়া কোমলপানীয় খেয়ে স্বামীর মৃত্যু!

স্টাফ রিপোর্টার : উত্তরখানে স্ত্রীর দেওয়া কোমলপানীয় কোকাকোলা খেয়ে স্বামী মারা গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। মৃতের নাম কামাল উদ্দিন (৪০)। সোমবার এ ঘট্না ঘটে। ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। কামালের বাবার নাম মৃত আলাউদ্দিন। তিনি উত্তরখানের কুড়িপাড়ায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন।
কামালের মা সাকিরন নেসার বরাত দিয়ে উত্তরখান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মনিরুজ্জামান আকন্দ জানান, সোমবার রাতে স্ত্রী সুমী আকতার কামালকে কোমলপানীয় কোকাকোলা খেতে দেন। কামাল তা খান। স্ত্রীও সামান্য খান। পরে কামাল অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে আব্দুল্লাহপুর আইচি হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
মনিরুজ্জামান আকন্দ জানান, গতকাল মঙ্গলবার সকালে আব্দুল্লাহপুর আইচি হাসপাতালের আইসিইউ থেকে কামালের মৃতদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি বলেন, ‘ওই হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. সুমন কামালের মৃত্যুর সনদপত্রে মৃত্যুর কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছেন, আননোন পয়জনিংয়ে (কোকাকোলা) তার মৃত্যু হয়েছে।’

রাজধানীতে ম্যানহোলে অজ্ঞাত নারীর লাশ
রাজধানীর খিলগাঁওয়ে ম্যানহোল থেকে অজ্ঞাতপরিচয় (৩৫) এক নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে খিলগাঁও-গোড়ান এলাকার একটি ম্যানহোল থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।
খিলগাঁও থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, গোড়ান এলাকার তিতাস রোডের একটি ম্যানহোল থেকে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ায় আশপাশের লোকজনের সন্দেহ হয়। পরে তারা পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ম্যানহোল থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে। আইনি প্রক্রিয়া শেষে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান, ধারণা করা হচ্ছে হত্যার পর মরদেহ ম্যানহোলে ফেলে গেছে কেউ। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।
ভবন থেকে পড়ে নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু
ভাটারায় একটি নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ওয়াজেদ মিয়া (৫০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৯ টার দিকে ভাটারা নতুনবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
নিহতের সহকর্মী আরিফ জানান, ওয়াজেদ মিয়া পটুয়াখালী বাউফল এলাকার বাসিন্দা, বর্তমানে ভাটারা এলাকায় একটি নির্মাণাধীন ভবনে থেকে কাজ করতেন। সকালে ওই ভবনের তৃতীয় তলায় কাজ করার সময় ‘অসাবধানতাবশত’ নিচে পড়ে যায় তিনি। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সকাল সাড়ে ১০টায় মৃত ঘোষণা করেন।
ঢামেক পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।
শাহজালালে আমদানি নিয়ন্ত্রিত-নিষিদ্ধ ওষুধ জব্দ
হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ আমদানি নিয়ন্ত্রিত ও নিষিদ্ধ বিদেশী ওষুধ জব্দ করেছে শুল্কগোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। গতকাল মঙ্গলবার শুল্কগোয়েন্দা অধিদফতরের পাঠানো একপ্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, সৌদি আরবের জেদ্দা থেকে ছেড়ে আসা হজ্বযাত্রী বহনকারী একটি ফ্লাইট (এসভি-৮০৮) সোমবার বিকেল পাঁচটার দিকে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্কগোয়েন্দারা জানতে পারেন এসভি-৮০৮ নম্বর ফ্লাইটে বিপুল পরিমাণ আমদানি নিয়ন্ত্রি¿ত ও নিষিদ্ধ ওষুধ শাহজালালে এসেছে। ওষুধগুলো হজ্বযাত্রীদের লাগেজবেল্ট দিয়ে স্ক্যানিং না করেই গোপনে বের করে নেওয়া হবে।
এমন তথ্যের ভিত্তিতে গোপনে ৮নম্বর লাগেজবেল্টে অভিযান চালায় শুল্কগোয়েন্দা দল। এ সময় হজ্বযাত্রীরা তাদের লাগেজ সংগ্রহ করে চলে গেলেও মালিকবিহীন অবস্থায় একটি ট্রলিতে দু’টি লাগেজ পড়ে থাকতে দেখে গোয়েন্দা সদস্যদের সন্দেহ হয়। পরে রাতেই ওই লাগেজ দু’টি ব্যাগেজবেল্ট থেকে এনে সব সংস্থার উপস্থিতিতে খুলে মোট ১৬ আইটেমের আমদানি-নিয়ন্ত্রিত ও আমদানি-নিষিদ্ধ ওষুধ পাওয়া যায়। পণ্যের শুল্ককরসহ জব্দ করা ওষুধের মূল্য প্রায় ১কোটি ৬০ লাখ টাকা। জব্দ করা ওষুধের বিষয়ে শুল্ক আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ