ঢাকা, বৃহস্পতিবার 6 September 2018, ২২ ভাদ্র ১৪২৫, ২৫ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজশাহীতে জামায়াত ও শিবিরের ১১ জনসহ আটক ১৮

রাজশাহী অফিস : গতকাল বুধবার রাজশাহী মহানগরীর মতিহার থানার বুধপাড়া এলাকায় ‘ব্লক রেইড’ অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এসময় জামায়াত ও শিবিরের ১০ জন ও ওয়ারেন্টভুক্ত পাঁচ আসামিকে আটক করা হয়ে। এছাড়া দুর্গাপুরে তিনজনকে গ্রেফতার কারা হয়।
বুধবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর পৌনে ২টা পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় অভিযান পরিচালিত হয়। ওই এলাকার চারপাশ ঘিরে প্রতিটি বাড়িতে পুলিশ তল্লাশি চালায় পুলিশ। অভিযানে মতিহার থানা ছাড়াও রাজশাহী মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ও পুলিশ লাইনের বিপুলসংখ্যক সদস্য অংশ নেন। অভিযানে নেতৃত্ব দেন আরএমপির মতিহার জোনের উপ-কর্মীশনার (ডিসি) সাজিদ হোসেন। আরএমপির মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কর্মীশনার (সদর) ইফতে খায়ের আলম জানান, জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে এই ব্লক রেইড চালানো হয়। এ সময় ১৫ জনকে আটক করা হয়। পর্যায়ক্রমে সব এলাকায় এ অভিযান চলবে বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।
দুর্গাপুরে আটক ৩ : রাজশাহীর দুর্গাপুরে নাশকতার পরিকল্পনা চেষ্টার অভিযোগে বিএনপি, জামায়াত ও শিবির কর্র্মীসহ ৩ জনকে গ্রেফতার করে থানার পুলিশ। এরা হলেন, দুর্গাপুর পৌর এলাকার বহরমপুর গ্রামের দায়েম উদ্দিনের পুত্র যুবদল নেতা চয়েন উদ্দিন (৪৪) ও শ্রীপুর এলাকার আমির আলীর পুত্র জামায়াতের কর্র্মী হায়দার আলী (৪২) এবং শিবির কর্র্মী শাহিনুর রহমান (২৭)। মঙ্গলবার রাতে পৃথক অভিযানে তাদের গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তাদের কাছে থেকে ৩টি ককটেল, ৪টি পেট্রোল বোমা ও ‘জিহাদী’ বই উদ্ধার করা হয় বলে দাবী করে থানার পুলিশ। তাদের দাবী, গ্রেফতারকৃত বিএনপি জামায়াত ও শিবির কর্মীরা দুর্গাপুর পৌর এলাকার হায়দার আলীর বাড়িতে রাষ্ট্রবিরোধী নাশকতার পরিকল্পনা করছিলো। মঙ্গলবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে এদের আটক করে। বুধবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও পুলিশ জানায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ