ঢাকা, শুক্রবার 7 September 2018, ২৩ ভাদ্র ১৪২৫, ২৬ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাকিব থেকে ৬০-৭০ ভাগ পারফরমেন্স পেলেও ভালো ---রোডস

স্পোর্টস রিপোর্টার : পুরোপুরি না হলেও, ৬০-৭০ ভাগ সুস্থ সাকিব আল হাসান দলের জন্য প্রধান সম্পদ ও শক্তি বলে মনে করেন বাংলাদেশের কোচ স্টিভ রোডস। আসন্ন এশিয়া কাপ ক্রিকেটের আগে গতকাল মিরপুরে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে এমন কথা বলেন রোডস। সাকিবের দলে থাকাটা অনেক বড় কিছু বলে মন্তব্যও করেন তিনি। তিনি বলেন, ‘সাকিব থাকায় পুরো দলই অনেক উজ্জীবিত।’ আঙ্গুলের ইনজুরির জন্য এশিয়া কাপে সাকিবের থাকা, না থাকা নিয়ে আলোচনা ছিলো ব্যাপক। শেষ পর্যন্ত তাকে দলে রাখে বাংলাদেশ। বোর্ড প্রধান, দলের ফিজিও, চিকিৎসক ও নির্বাচকরা আলোচনার পর সাকিবের থাকা নিশ্চিত করেন। সাকিবের থাকাটাই দলের জন্য চালিকা শক্তি বলেন মনে করেন কোচ রোডস। তিনি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি সাকিব পুরো শতভাগ ফিট নয়। এও সত্যি যে ৬০-৭০ ভাগ সুস্থ সে। সে যতটুকুই সুস্থ হোক না কেন, দলের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় সে। সাকিব দলের প্রধান সম্পদ ও শক্তি। দলের জন্য সে খুবই গুরুত্বপূর্ণ একজন সদস্য।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পর পবিত্র হজ পালন করে পরবর্তীতে পরিবারের সাথে দেখা করতে যুক্তরাষ্ট্রে চলে যান সাকিব। তাই এশিয়ার কাপের জন্য বাংলাদেশের অনুশীলন ক্যাম্পে যোগ দিতে পারেননি সাকিব। অনুশীলনে সাকিবের না থাকাটা দলের উপর কোন নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে কি-না, এমন প্রশ্নের জবাবে রোডস বলেন, ‘সাকিব অনুশীলন করেনি। এটি কোনো নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে না। ড্রেসিংরুমেও এ ব্যাপারে নেতিবাচক কোন আলোচনা নেই। পারফরমার সাকিব দলের সবার কাছে অনেক প্রিয়।’ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের ফিটনেস নিয়ে রোডস বলেন, ‘আমি মনে করছি না সাকিব ২০ থেকে ৩০ শতাংশ ফিট। আমার ধারণা সে এর চেয়ে বেশি ভালো রয়েছে। ওই ধরনের বিবৃতি শিরোনাম হিসেবে  বেশ সাড়া ফেলে। তবে আমি নিশ্চিত যে সাকিব বেশ ফিট রয়েছেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজে ব্যাট, বল ও ফিল্ডিংয়ে সে অসাধারণ খেলেছে। ওই সময়কার চেয়ে সে এখন খুব ভিন্ন অবস্থায় নেই।’ ঘরের মাঠে শ্রীংকার বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজেই আঙ্গুলে চোট পেয়েছিলেন সাকিব। এ চোট নিয়েও সাকিব খেলে গেছেন বেশ কিছু ম্যাচ। ব্যথা বাড়লে নিয়েছেন ব্যথানাশক ইনজেকশন। এমন অবস্থায় সবশেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও অসাধারণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন সাকিব। তার সবশেষ সিরিজকে ইঙ্গিত দিয়ে টাইগার কোচ বলেন, ‘প্রত্যেকেই জানে সাকিবের অস্ত্রোপচার প্রয়োজন। সভাপতির সঙ্গে কথা বলেই সে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এশিয়া কাপ বাংলাদেশের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। সাকিব সম্পূর্ণ ফিট নয়। তবে ক্যারিবীয়ানের মতো খেললে বাংলাদেশের জন্য সেটা অনেক বড় পাওয়া হতে পারে। সে বিস্ময়কার ক্রিকেটার। এমনকি ৬০-৭০ শতাংশ ফিট থাকলেও সাকিব আল হাসানের কাছ থেকে আপনি অনেক কিছু পেতে পারেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ