ঢাকা, শনিবার 8 September 2018, ২৪ ভাদ্র ১৪২৫, ২৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

উ. কোরীয় চরের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে সাইবার হামলার অভিযোগ

৭ সেপ্টেম্বর, বিবিসি : ২০১৭ সালে আলোচিত সাইবার হামলার ঘটনায় বিভিন্ন দেশের কমপিউটার ব্যবস্থায় অচলাবস্থা দেখা দেয়। ম্যালওয়্যার হামলা চালিয়ে যুক্তরাজ্যের জাতীয় স্বাস্থ্যসেবা-ব্যবস্থার (এনএইচএস) বেশ কিছু অংশ বিকল করে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় উত্তর কোরিয়ার নাগরিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন যুক্তরাষ্ট্রের কৌঁসুলিরা। ম্যালওয়্যার হামলার পর এনএইচএসের কম্পিউটার ব্যবস্থায় বিকল অবস্থা তৈরি হয়। এ ঘটনায় জড়িত লাজারাস নামে হ্যাকিংগোষ্ঠীর সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার পার্ক জিন হিউক নামের ওই ব্যক্তি জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। লাজারাস গ্রুপের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালে সনি পিকচার্সে হ্যাকিং করার অভিযোগও ওঠে।

যুক্তরাষ্ট্রের বিচার বিভাগ অভিযোগ করেছে, উত্তর কোরীয় সমর্থিত সাইবার গোষ্ঠী বড় ধরনের ক্ষতি করেছে। জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাটর্নি জেনারেল জন ডেমার্স বলেন, উত্তর কোরিয়ার মদদপুষ্ট দলটির ম্যালওয়্যার হামলার শিকার হয় ১৫০টিরও বেশি দেশ। এতে বড় ধরনের ক্ষতি হয়। উত্তর কোরিয়া বরাবর এ ধরনের হামলায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের কৌসুলিরা বলছেন, পার্ক এই হ্যাকিংয়ের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তাঁরা মনে করছেন, পার্ক উত্তর কোরিয়ায় রয়েছেন। উত্তর কোরিয়ার পর্যবেক্ষক ও সাংবাদিক মার্টিন উইলিয়ামস বলেন, পার্ককে শিগগিরই হস্তান্তর করা হবে না। বিভিন্ন কৌশলের কারণে সাইবার হ্যাকারদের ধরা খুব কঠিন। হামলার বিষয়ে ১৮০ পাতাবিশিষ্ট অভিযোগের নথিতে বলা হয়, পার্ক এ ঘটনায় সরাসরি জড়িত ছিলেন। ২০১৭ সালের ওই সাইবার হামলায় কম্পিউটার ব্যবস্থায় অচলাবস্থা দেখা দেয়। হ্যাকিংয়ের শিকার দেশগুলোর তালিকায় যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া, স্পেন, ইতালির মতো উন্নত প্রযুক্তির রাষ্ট্রও ছিল। হ্যাকাররা বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির ওয়েবসাইট অচল করে দিয়ে বিনিময়ে ৩০০ মার্কিন ডলার দাবি করে। এগুলো ডিজিটাল মুদ্রা বিটকয়েনের মাধ্যমে পরিশোধ করতে বলা হয়েছিল।

এই হামলা নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছে মার্কিন কেন্দ্রীয় তদন্ত ব্যুরো (এফবিআই)। যুক্তরাজ্যের পুলিশ এফবিআইকে তদন্তে সহায়তা করছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ