ঢাকা, শনিবার 8 September 2018, ২৪ ভাদ্র ১৪২৫, ২৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বাড়ছে মৃতের সংখ্যা নিখোঁজদের নিয়ে শঙ্কা

৭ সেপ্টেম্বর , বিবিসি : জাপানের হোক্কাইদো দ্বীপে শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিখোঁজদের সন্ধানে জোর তৎপরতা চালাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা।

সুপার টাইফুন জেবির আঘাতে তছনছ হওয়ার দুইদিনের মাথায় হওয়া এ ৬ দশমিক ৭ মাত্রার ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬-তে পৌঁছেছে বলে।

বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে আঘাত হানা ওই ভূমিকম্পের পর থেকেই হাজার হাজার লোক আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। এখনো অন্তত কয়েক ডজনের খোঁজ না মেলায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে। ভূমিকম্পের পর সৃষ্ট ভূমিধসের ফলে নিখোঁজদের অনেকেই ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে আছে বলে ধারণা কর্তৃপক্ষের। হোক্কাইদোর প্রায় ১৬ লাখ বাসিন্দা এখনও বিদ্যুৎহীন। পশ্চিম উপকূলে শক্তিশালী টাইফুন আঘাত হানার কয়েকদিনের মাথায় দেখা দেওয়া এ দ্বিতীয় এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশটি বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

 

ভূমিকম্পে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যে গ্রামগুলো তার মধ্যে আতসুমাও আছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। ভূমিধসের পর এখানকার সড়ক ও বাড়িঘরগুলোও ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। “অনেকেই মাটির নিচে চাপা পড়া আছেন বলে শুনেছি; আমরা সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কাজ করে যাচ্ছি, যদিও তাদের উদ্ধার করাটা কঠিন হয়ে পড়ছে,” জাপানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনএইচকে-কে এমনটাই বলেছেন এক উদ্ধারকর্মী। আতসুমার এক বাসিন্দা জানান, ভূমিধসটি ছিল ‘ভীষণ ভয়ানক’। “পুরোটা পথ ধরে মাটি নেমে এসেছিল, আমি ভেবেছিলাম আমি মারা পড়ছি। ভেবেছিলাম আমার বাড়িও ধ্বসে পড়ছে,” বলেছেন তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ