ঢাকা, শনিবার 8 September 2018, ২৪ ভাদ্র ১৪২৫, ২৭ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রামে অগ্নিকাণ্ডে ২০টি ঘর পুড়ে গেছে ॥ নিহত এক

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম মহানগরীর আসকারদিঘীর পাড় এলাকায় গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২০টি কাঁচা পাকা ঘর পুড়ে গেছে। এ সময় ধোয়ায় এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। নিহতের নাম অরুণ চক্রবর্তী (৭০)। তিনি লোকনাথ মন্দিরের হিসাব রক্ষক বলে জানা গেছে। অগ্নিকান্ডের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।
ফায়ার সাভির্স সূত্র জানিয়েছে, আসকার দীঘির পশ্চিম পাড়ে লোকনাথ মন্দির ও আশপাশে সন্ধ্যা ৭টার দিকে কাঁচা ঘরে আগুন লাগে। আগুন লাগার পর মুহূর্তেই তা ছড়িয়ে যায় কাঁচাঘরগুলোতে। পরে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। ফায়ার সার্ভিসের ১১টি গাড়ি ৪৫ মিনিটের মধ্যেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে সম্পূর্ণ নির্বাপিত হয় রাত ৯টা ১০ মিনিটে। অগ্নিকা-ের সময় মন্দিরের পাশে একটি কামরায় আটকে পড়েন অরুন চক্রবর্তী। ধুয়ার কুণ্ডলি কামরায় ঢুকলে তিনি গুরুতর আহত হন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে গেলে তিনি সেখানে পৌনে ১০টার দিকে মারা যান। প্রত্যক্ষদর্শী বিষু রায় চৌধুরী জানান, মন্দিরের ভেতরের কাঁচাঘরগুলোতে আগুনের ঘটনায় সবগুলো ঘরই সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়। এতে নিঃস্ব হয়ে যায় অনেক পরিবার। চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা,স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর সহ অনান্যরা অগ্নিকান্ড স্থল পরিদর্শন করেছেন।
রাউজানে গণপিটুনীতে দুইজন নিহত
গতকাল শুক্রবার ভোর ৪টার দিকে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার  পাহাড়তলী ঊনসত্তরপাড়া এলাকায় সিরাজ কলোনীতে  চোর সন্দেহে পিটিয়ে দুজনকে হত্যা করা হয়েছে। নিহত দুই জন হলেন, মোক্তার (২৭) ও সাইফুল (২৮)। মোক্তার খানপাড়া গ্রামের হামদু মিয়ার ছেলে। সাইফুল ঐ এলাকার কালু মিয়ার ছেলে ।
পুলিশ সূত্র বলছে, মোক্তার ও সাইফুল গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে চুরি করতে সিরাজ কলোনিতে গিয়েছিল। কলোনির বাসিন্দাদের চিৎকারে এসময় স্থানীয় জনতা তাদের ঘিরে ফেলে। জনতার হাত থেকে বাঁচার জন্য তারা গুলীবর্ষণের হুমকি দেয়। এরমধ্যে আরও বিপুল সংখ্যক লোক জড়ো হয়ে যায় ও তাদের ধরে ফেলে। এরপর গণপিটুনিতে দুজনের মৃত্যু হয়। পুলিশ দুজনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ