ঢাকা, রোববার 9 September 2018, ২৫ ভাদ্র ১৪২৫, ২৮ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

হরিপুরে ছাউনি দখল করে ব্যবসা

জে.ইতি  হরিপুর (ঠাকুরগাও): হরিপুর-কামানপুকুর মহাসড়কের মধ্যে রয়েছে তিনটি যাত্রী ছাউনি । যাত্রী ছাউনিগুলোতে দোকানপাট করার ফলে যাত্রী ছাউনিগুলোর কোনো অস্তিত্ব নেই । সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ আর অযতœ-অবহেলায় হরিপুরে যাত্রী ছাউনিগুলোর বেহাল দশা। বাসের জন্য অপেক্ষমাণ যাত্রীদের বর্ষায় বৃষ্টি আর গ্রীষ্মে প্রচ- রোদ থেকে রক্ষা  করতে এবং বাস থামার নির্দিষ্ট স্থানে বিশ্রাম নেয়ার জন্য তৈরি করা হয় যাত্রী ছাউনি। হরিপুরে এমন ৫টি যাত্রী ছাউনি থাকলেও তিনটির অবস্থা বেশিরভাগই অব্যবহারযোগ্য। রয়েছে অবৈধ দখলে। মাদকসেবী, বখাটেদের আড্ডাখানা। অহেতুক যাত্রীছাউনি দখল করে আছে যা নাগরিকদের ভোগান্তি বাড়িয়েছে।  উপজেলাবাসী বলেছে, অবৈধ দখল আর অব্যবহারযোগ্য যাত্রীছাউনি ভেঙ্গে পরিকল্পিতভাবে নতুন করে নির্মাণ করলে উপকৃত হবে উপজেলাবাসী। যাত্রীদের সুবিধার্থে আশির দশকে নির্মিত এসব ছাউনিতে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। উপজেলার বটতলী ছাউনি, চোরঙ্গীবাজার ছাউনি, কামারপুকুর ছাউনি সরেজমিনে দেখে জানা গেছে, সেসব স্থানে নানা প্রকার পণ্য সামগ্রীর দোকান রয়েছে। আবার কোনো ছাউনির পুরোটাই দখল করে অবৈধভাবে ব্যবসা পরিচালনা করা হচ্ছে। বর্তমানে ৩টি যাত্রীছাউনি বেহাল দশায় রয়েছে। এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জানান, আমরা মনে করি সরকারের অর্থ সঠিকভাবে কাজে লাগানো প্রয়োজন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ