ঢাকা, মঙ্গলবার 11 September 2018, ২৭ ভাদ্র ১৪২৫, ৩০ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মালয়েশিয়াকে বদলে দেয়ার জন্য আমি পুরোপুরি প্রস্তুত-আনোয়ার ইব্রাহীম

 

১০ সেপ্টেম্বর, চ্যানেল নিউ এশিয়া : মালয়েশিয়ার অন্যতম রাজনৈতিক নেতা আনোয়ার ইব্রাহীম এই বলে ঘোষণা দেন যে, তিনি পাকতান হারপান এবং দেশের জনগণকে সেবা দিতে পুরোপুরি প্রস্তুত। প্রসঙ্গত আনোয়ার ইব্রাহীম মালয়েশিয়ার রাজনীতি থেকে চার বছর যাবত নিজেকে দূরে রেখেছিলেন।

 ‘আমি চার বছর যাবত রাজনীতি থেকে দূরে ছিলাম। এটা আসলে দীর্ঘ একটি সময়। তবে পাকতান হারপানের অন্যান্য বন্ধুদের সাথে নিয়ে দেশের জন্য সংগ্রাম করার সময় এখন খুব নিকটে।’

 ‘আমিই আনোয়ার ইব্রাহীম এবং আমি এখনো দৃঢ়চেতা। আমি এখনো সংগ্রাম করতে পারি। ৬১ বছরের পুরনো একটি সরকারকে পরিবর্তন করা অতটা সহজ কাজ নয় কিন্তু আমি এই সংগ্রামে আপনাদের সাথে থাকবো।’

মালয়েশিয়ার Poh Tong (একটি চীনা মন্দির) কর্তৃক আয়োজিত Hungry Ghost Festival এ অংশ নিয়ে ৭১ বছর বয়সী এই রাজনীতিবিদ এসব কথা বলেন।

Hungry Ghost Festival এ অন্যান্যদের মধ্যে, মালয়েশিয়ার বালাকং রাজ্যের উপ-নির্বাচনে পাকতান হারপানের প্রার্থী উং সো কি এবং ডেমোক্রেটিক একশন পার্টির সচিব ইয়ান ইয়ং হাইয়ান ওহা উপস্থিত ছিলেন।

বালাকাং রাজ্যের সাংসদ এডি নং তিয়েন চী চলতি বছরের ২০শে জুলাইতে মৃত্যুবরণ করায় সেখানকার সংসদীয় আসনটি খালি হয়ে পড়ে।

রাজ্যটির উপ-নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্য উং সো কি কে মালয়েশিয়া চাইনিজ এসোসিয়েশন এর প্রার্থী তান চী তেওং এর সাথে প্রতিদন্ধিতা করতে হবে। আনোয়ার ইব্রাহীম শনিবারে রাজ্যটিতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া নির্বাচনে পাকাতান হারপানের প্রার্থীকে বিজয়ী করার জন্য ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানান।

আনোয়ার ইব্রাহীম বলেন, ‘বর্তমানে আমার অনেক সহকর্মী মন্ত্রীসভায় রয়েছেন। তারা দুর্নীতি দমন এবং সমস্যার সমাধানের জন্য কঠোর পরিশ্রম করছেন।’

তিনি জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আরো বলেন, ‘আপনাদের জন্য এভাবে কঠোর পরিশ্রম করার জন্য তাদেরকে সুযোগ দান করুন, শনিবারের আসন্ন নির্বাচনে আমাদের তরুণ প্রার্থীকে বিজয়ী করে সমস্যা গুলোকে নির্মূল করার সুযোগ দিন।’

জব্দ করা অর্থ ফেরত চান মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী : নির্বাচনে পরাজয়ের পর পুলিশের অভিযানে জব্দ করা অর্থ ও মূল্যবান সামগ্রী ফেরত চেয়েছেন মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। চলতি সপ্তাহে এক ফেসবুক পোস্টে তিনি দাবি করেছেন পুলিশি অভিযানে জব্দ করা এসব অর্থ ও মূল্যবান সামগ্রীর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি।

গত মে মাসে অনুষ্ঠিত মালয়েশিয়ার সাধারণ নির্বাচনে নাজিব রাজাকের নেতৃত্বাধীন জোটকে পরাজিত করে ক্ষমতায় আসেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী ৯২ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ। নির্বাচনে পরাজয়ের পর ক্ষমতায় থাকতে নাজিবের বিরুদ্ধে ওঠা রাষ্ট্রীয় তহবিল আত্মসাতের মামলা পুনঃ তদন্ত শুরু হয়। ওই তদন্তের অংশ হিসেবে নাজিব রাজাক ও তার আত্মীয়দের মালিকানাধীন বাসভবনে অভিযান চালায় পুলিশ।

গত ১৬ মে চালানো ওই অভিযানে নগদ প্রায় তিন কোটি মার্কিন ডলার অর্থ, অলংকার, বিভিন্ন দামী ব্রান্ডের হাত ব্যাগ ও ঘড়ি জব্দ করে পুলিশ। তবে জব্দ করা নগদ অর্থ তার রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড মালায়াস ন্যাশনাল অর্গানাইজেশনের বলে দাবি করেন নাজিব। তিনি বলেন নির্বাচনি খরচ এবং রাজনৈতিক কার্যক্রম চালানোর জন্যেই এসব অর্থ বাড়িতে রাখা হয়েছিল।  অলংকার বিভিন্ন মূল্যবান সামগ্রীর বিষয়ে নাজিব তার ফেসবুক পোস্টে বলেন, ‘জব্দ করা অলংকার ও হাতব্যাগ নিয়ে পরে আমি আরও ব্যাখ্যা করবো। কিন্তু এগুলো এখনই সাধারণ মানুষের আলোচনার বিষয়বস্তুতে পরিণত হয়েছে।

বর্তমানে জামিনে মুক্ত রয়েছেন নাজিব। তবে তার ও তার স্ত্রীর বিদেশ ভ্রমনের ওপর নিষেধাজ্ঞা বলবৎ রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ