ঢাকা, মঙ্গলবার 11 September 2018, ২৭ ভাদ্র ১৪২৫, ৩০ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সত্য প্রকাশের অপেক্ষায় আছি

নাগরিকরা আইনের শাসন চায়, সুশাসন চায়। তাদের এমন আকাক্সক্ষা পূরণে আদালতের করণীয় আছে, করণীয় আছে পুলিশ প্রশাসনেরও। সরকারের দায়িত্বও গুরুত্বপূর্ণ। সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছাও এ প্রসঙ্গে উঠে আসে। প্রসঙ্গত এখানে ‘বাদী চেনেন না, মামলা করল কে?’ শিরোনামের খবরটির কথা উল্লেখ করা যায়। ৯ সেপ্টেম্বর প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত খবরটিতে বলা হয়, যাত্রীকল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরীকে পেশাদার চাঁদাবাজ আখ্যায়িত করেছে মিরপুর থানার পুলিশ। গত শনিবার তাকে পুনরায় পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করা হয়। আদালত অবশ্য মোজাম্মেলকে রিমান্ডে নেয়ার আবেদন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন ।
মোজাম্মেলের আইনজীবী জ্যোতির্ময় বড়ুয়া আদালতকে বলেছেন, মামলার বাদীই গণমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিয়ে বলেছেন আসামীকে তিনি চেনেন না। তাহলে মোজাম্মেলের বিরুদ্ধে মামলা করল কে? এটা সাজানো মিথ্যা মামলা। উল্লেখ্য যে, গত মঙ্গলবার চাঁদাবাজির এ মামলা করেন কথিত মিরপুর রোড শ্রমিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ দুলাল। তবে দুলাল গণমাধ্যমকে বলেন, তিনি নেতা নন, কোন পদবীও তার নেই। তিনি ঢাকা চিড়িয়াখানা পরিবহনের লাইনম্যান। দুলাল আরও বলেন, নতুন পরিবহন কোম্পানি খোলার কথা বলে মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের মিরপুর শাখার সভাপতি আবদুর রহিম ও সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন তার স্বাক্ষর নেন এবং পরে তিনি জানতে পারেন সেই স্বাক্ষরে মামলা করার কথা। উল্লেখ্য যে, যাত্রী কল্যাণ সমিতি সড়ক দুর্ঘটনা, বাড়তি ভাড়াসহ পরিবহন খাতের নানা অসঙ্গতি নিয়ে কয়েক বছর ধরেই প্রতিবেদন প্রকাশ করে আসছে। এতে বিশেষ মহল সমিতির নেতাদের বিরুদ্ধে ক্ষুব্ধ হতে পারে। এছাড়া দুই ঈদের পরেই দুর্ঘটনায় হতাহত ব্যক্তিদের সংখ্যা তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলন করেছিল যাত্রী কল্যাণ সমিতি। পরে গত ১০ জুলাই সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে যাত্রী কল্যাণ সমিতির দুর্ঘটনার প্রতিবেদনকে ভুয়া বলে মন্তব্য করেন।
আমরা মনে করি, কোন প্রতিবেদনকে ভুয়া প্রমাণ করতেও তথ্য-প্রমাণ প্রয়োজন। আর যে আসামীকে খোদ বাদীই চেনেন না, সেখানে তো সন্দেহের উদ্রেগ হবেই। এখানেই চলে আসে ন্যায় ও সুশাসনের প্রসঙ্গ। এই মামলায় পুলিশ প্রশাসন ও আদালতের ভূমিকা নাগরিকদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। আমরা ন্যায় ও সত্য প্রকাশের অপেক্ষায় আছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ