ঢাকা, মঙ্গলবার 25 September 2018, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ইরাকের সন্ত্রাসী ঘাঁটিতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাতে বাধ্য হয়েছে ইরান: কাসেমি

ইরাকে সন্ত্রাসীদের ঘাঁটি পরপর সাতটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে আইআরজিসি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

ইরান ঘোষণা করেছে, দেশটিতে হামলা করতে আসা সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ক্ষেত্রে কোনো আপোষ করা হবে না। নিজের নিরাপত্তার ব্যাপারে কোনো ছাড় দেয়া হবে না বলেও তেহরান প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে।

উত্তর ইরাকে কুর্দি সন্ত্রাসীদের অবস্থানে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা সংক্রান্ত এক প্রশ্নের উত্তরে একথা বলেন, ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি।

তিনি বলেন, ইরান এ ধরনের হামলা কখনো চালাতে চায়নি এবং এখনো চায় না। কিন্তু সন্ত্রাসীদের হামলায় ইরানের সীমান্তরক্ষী, নিরাপত্তা কর্মী ও সাধারণ মানুষের নিহত হওয়ার ঘটনায় তেহরান বাধ্য হয়ে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে যাতে সন্ত্রাসীরা ভবিষ্যতে একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি না করে।

ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী- আইআরজিসি গত শনিবার ইরাকের উত্তরাঞ্চলে সন্ত্রাসীদের একটি ঘাঁটিতে ক্ষুদ্রপাল্লার সাতটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। প্রায় ২২০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে এসব ক্ষেপণাস্ত্র সন্ত্রাসীদের ঘাঁটিতে সঠিকভাবে আঘাত হানে।

শনিবারই ওই সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জানায় এ হামলায় তাদের ১৫ নেতাকর্মী নিহত ও অপর ৪০ জন আহত হয়। গতকাল সোমবার আইআরজিসি ওই হামলার সত্যতা নিশ্চিত করে। এর আগে ২০১৭ সালের জুন মাসে সিরিয়ার দেইর আজ-জোর প্রদেশে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশের কমান্ডিং পোস্টে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছিল আইআরজিসি। -পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ