ঢাকা, মঙ্গলবার 11 September 2018, ২৭ ভাদ্র ১৪২৫, ৩০ জিলহজ্ব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নেত্রকোনা কালভার্টের মুখ বন্ধ করায় স্কুলে জলাবদ্ধতা

নেত্রকোনা সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের সুরাইয়া ডিএমসি উচ্চ বিদ্যালয়ের চারপাশে পানি। তলিয়ে গেছে খেলার মাঠ

দিলওয়ার খান, (নেত্রকোনা): নেত্রকোনা সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের মেয়ারগাতী গ্রামে কালভার্টের মূখ বন্ধ করায় সুরাইয়া আব্বাছ ডিএমসিসি উচ্চ বিদ্যালয়ের জলাবদ্ধতা সৃষ্টির হয়েছে। প্রশাসনকে জানানোর কারনে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. পারভেজ উদ্দিনকে প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছে কালভার্টের মূখ বন্ধকারী ফিসারীর মালিকের লোকজন। বৃহস্পতিবার শিক্ষক পারভেজ উদ্দিন জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে নেত্রকোনা মডেল থানায় হুমকিদাতা বুলবুল, ফিসারীর মালিক সাদেক মিয়া ও মাহফুজুর রহমানের বিরুদ্ধে জিডি এবং সদর ভূমি কর্মকর্তা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক রাজস্ব বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এলাকাবাসী ও বিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সদর উপজেলার মদনপুর ইউনিয়নের মেয়ারগাতী গ্রামে কেন্দুয়া- নেত্রকোনা সড়কের পাশে সুরাইয়া আব্বাস ডিএমসি উচ্চ বিদ্যালয়। বিদ্যালয়টিতে ৬ষ্ট শ্রেণি থেকে ১০ম শ্রেণি পর্যন্ত ২৬৫ জন এলাকার ছেলে মেয়ে লেখাপড়া করে। শিক্ষক রয়েছেন ১২ জন। গত দুই বছর ধরে বিদ্যালয়টির বেহালদশা বিরাজ করছে। বিদ্যালয়ের উত্তর পাশে এলাকাবাসীর চলাচলের জন্য সড়কের কালভার্টের মূখ বন্ধ করে গত প্রায় তিন বছর আগে এলাকার জনৈক প্রভাবশালী মাহফুজুর রহমান ও সাদেক মিয়া ফিসারী স্থাপন করেন। এতে করে গত দুই বছর ধরে সামান্য বৃষ্টি হলেই মারাত্মক জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। জলাবদ্ধতার কারণে বিদ্যালয়ের চলাচলের রাস্তা, দক্ষিণ পাশের টিন সেডে ষষ্ট, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির পাঠদান কক্ষ, শিক্ষার্থীদের জন্য বিদ্যালয়ের খেলার মাঠ পানিতে ডুবে যায়। পানি কমলেও টিন সেড কক্ষ স্যাতস্যাতে অবস্থায় থাকে। এতে করে পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হয়। খেলার মাঠ পানিতে ডুবে থাকায় শিক্ষার্থীরা খেলাধূলা করতে পারে না। এই অবস্থা বর্ষকালে প্রায় ছয় মাস ধরে থাকে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ