ঢাকা, বুধবার 12 September 2018, ২৮ ভাদ্র ১৪২৫, ১ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

তীব্র জুলুম নির্যাতন চালিয়ে আ’লীগ আবারও ক্ষমতা দখল করতে চায় -মির্জা ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার: তীব্র জুলুম নির্যাতন চালিয়ে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো আবারও একটি একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে আ’লীগ জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসটিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বর্তমান ভোটারবিহীন গণধিকৃত সরকার আবারো একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতার মসনদে বসতে চায়। কিন্তু জনগণের মিলিত ঐক্যে সেই স্বপ্ন আর কখনোই পূরণ করতে পারবে না।
বিএনপি’র সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, বিএনপি’র সহ-স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ রফিকুল ইসলাম বাচ্চুর বিএনপি’র কেন্দ্র ঘোষিত জাতীয় প্রেস ক্লাবের মানববন্ধন কর্মসূচিতে অবস্থান, গাজীপুর জেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইদুল ইসলাম বাবুল সিঙ্গাপুরে, সাবেক ছাত্রনেতা এ্যাডভোকেট মুনির ভেলোরে, গাজীপুর বার এর সাবেক সভাপতি এ্যাডভোকেট শহীদুজ্জামান ১৫ দিন থেকে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি থাকা এবং শ্রীপুর উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি সিরাজউদ্দিন কাইয়া ভারতে অবস্থান সত্বেও উল্লেখিত নেতৃবৃন্দসহ ১৪০ জন নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন। 
বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, জনগণের মধ্যে ভীতি ও আতঙ্ক ছড়িয়ে দিয়ে চিরদিন রাষ্ট্রক্ষমতায় আসীন থাকার স্বপ্নে বিভোর হয়েই বর্তমান শাসকগোষ্ঠী দেশব্যাপী বিএনপিসহ বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা দায়ের, গ্রেফতার, রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন এবং কারান্তরীণ করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। নেতৃবৃন্দ দেশের বাইরে থাকা এবং হাসপাতালে ভর্তি থাকা সত্বেও তাদের বিরুদ্ধে কাল্পনিক ও গায়েবী মামলা দায়েরের ঘটনায় এটি সুস্পষ্ট যে, সরকার সুপরিকল্পিতভাবে দেশের সবচেয়ে বৃহত্তম ও জনপ্রিয় রাজনৈতিক দল বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করার গভীর চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে। একদিকে সম্পূর্ণ নির্দোষ বিএনপি চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজানো মামলায় দোষী বানিয়ে অন্যায়ভাবে কারাবন্দী রেখে তাকে তিলে তিলে নি:শেষ করা এবং অন্যদিকে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর তীব্র জুলুম নির্যাতন চালিয়ে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির মতো আবারও একটি একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে জোর করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখল করতে চায় বর্তমান ভোটারবিহীন গণধিকৃত সরকার। কিšুÍ জনগণের মিলিত ঐক্যে সেই স্বপ্ন আর কখনোই পূরণ করতে পারবে না সরকার। উল্লেখিত নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে গায়েবী, মিথ্যা ও সাজানো মামলা দায়েরের ঘটনায় আমি তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি করছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ